BREAKING NEWS

১৪ মাঘ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

শিলিগুড়িতে ফের উদ্ধার কয়েক কোটি টাকার সোনা

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: November 18, 2018 3:32 pm|    Updated: November 18, 2018 3:32 pm

siliguri-10-gold-recovered-in-NGPRailway station-one-held

শুভদীপ রায় নন্দী, শিলিগুড়ি: ফের শিলিগুড়ি থেকে উদ্ধার প্রায় ১০ কেজি সোনা৷ বেআইনি সোনা পাচারের দায়ে গোয়েন্দাদের জালে পাকড়াও একজন৷ গোপন সূত্রে পাওয়া খবরের ভিত্তিতে এনজেপি স্টেশনে ডাউন কামরূপ এক্সপ্রেস থেকে রাজু আদর্শ নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেন কেন্দ্রীয় রাজস্ব গোয়েন্দা দপ্তরের আধিকারিকরা৷ পরে, ওই ব্যক্তির কাছ থেকে প্রায় ১০ কেজি সোনা উদ্ধার হয়৷ সোনা কেনার কোনও নথিপত্র দেখাতে না পারায় অভিযুক্তকে পাকড়াও করেন কেন্দ্রীয় রাজস্ব গোয়েন্দা দপ্তরের আধিকারিকরা।

[শেষ ইচ্ছে, পথশিশুদের নিয়ে মৃত স্ত্রীর জন্মদিন পালন করলেন স্বামী]

জানা গিয়েছে, উদ্ধার হওয়া সোনার বাজার মূল্য প্রায় তিন কোটি টাকার বেশি। ধৃত সোনা পাচারকারী রাজু আদর্শ হুগলির বাসিন্দা৷ কেন্দ্রীয় রাজস্ব গোয়েন্দা দপ্তরের আধিকারিকরা জানতে পেরেছেন, ভুটান থেকে কম দামে সোনা কিনে অসম হয়ে পাচারের জন্য কলকাতায় আনা হচ্ছিল৷ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে এনজেপি স্টেশনে ডাউন কামরূপ এক্সপ্রেসে হানা দেন গোয়েন্দারা৷ পরে সোনা-সহ অভিযুক্ত গ্রেপ্তার করা হয়৷ রবিবার ধৃত রাজুকে শিলিগুড়ি মহকুমা আদালতে তোলা হয়৷ ধৃতকে জেরা করে সোনা পাচারচক্রের পাণ্ডাদের সন্ধান শুরু করেছেন গোয়েন্দারা৷ এই ঘটনার পিছনে আন্তর্জাতিক সোনা পাচারচক্রের মদত রয়েছে বলেও জানতে পেরেছেন তাঁরা৷  

[অভিনব কেপমারি, কথায় ভুলিয়ে প্রৌঢ়ার ৯০ হাজারের গয়না লুট]

গত ৮ জুলাই, একইভাবে শিলিগুড়ির ফুলবাড়ি থেকে ১০ কেজি সোনা উদ্ধার করেন রাজস্ব দপ্তরের গোয়েন্দারা৷ গ্রেপ্তারও করা হয় দুই পাচারকারীকে৷ ধৃতদের একজনের বাড়ি দিল্লিতে৷ অপরজন বিহারের বাসিন্দা৷ তদন্তকারীদের দাবি, ভুটান থেকে জয়গাঁও সীমান্ত পেরিয়ে সোনা আনা হয়েছিল শিলিগুড়িতে৷ বিহারের পাচারের পরিকল্পনা ছিল৷ উদ্ধার হওয়া সোনার বাজারমূল্য প্রায় তিন কোটি টাকা৷

[বীরভূমে ‘কীর্তন যাত্রা’ পিছিয়ে বিজেপিকে খোঁচা অনুব্রতর]

গত ১৫ সেপ্টেম্বর সোনা পাচারকাণ্ডে নাম জড়ায় এক সেনাকর্তা-সহ রাজ্যের দুই পুলিশ আধিকারিকেরও৷ সিআইডি সূত্রে খবর, ভুটান সীমান্ত হয়ে বেআইনিভাবে এ রাজ্যে আসা ১৫ কেজি বাজেয়াপ্ত সোনা আত্মসাৎ করার চেষ্টা করেছিল ধৃতেরা৷ আলিপুরদুয়ার থেকে গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্তদের৷ এর আগে একাধিকবার সোনা উদ্ধার করেছেন রাজস্ব দপ্তরের গোয়েন্দারা৷ গ্রেপ্তার করা হয়েছে পাচারকারীদেরও৷ গত ১৮ জুন শিলিগুড়িতে ৩২ কেজি সোনা উদ্ধার করেছিলেন রাজস্ব দপ্তরের গোয়েন্দারা৷ চলতি আর্থিক বছরে এখনও পর্যন্ত উদ্ধার হয়েছে ১৬০ কেজি সোনা৷ যার বাজার মূল্য ৫৫ কোটি টাকা৷ রাজস্ব বিভাগের গোয়েন্দাদের দাবি, বাংলাদেশ, মায়ানমার, ভুটান, এমনকী চিন থেকে সোনা পাচার চেষ্টা করা হয়েছিল৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে