Advertisement
Advertisement
Nadia

পাছে কামড়ে দেয় হনুমান! আতঙ্কে ষষ্ঠীতেও শ্বশুরবাড়ি মুখো হলেন না এই গ্রামের জামাইরা

সদ্যই ওই গ্রামে হনুমানের হামলায় একজনের প্রাণ গিয়েছে।

Son in laws afraid to visit Jamai Shasthi after langoor attacked locals
Published by: Subhankar Patra
  • Posted:June 12, 2024 7:32 pm
  • Updated:June 12, 2024 7:32 pm

রমণী বিশ্বাস, তেহট্ট: হনুমানের আতঙ্কে দিন কাটছে তেহট্ট থানার বেতাই দক্ষিণ জিতপুর এলাকার বাসিন্দাদের। ইতিমধ্যেই হনুমানের আক্রমণে আহত হয়েছেন গ্রামের বেশ কয়েকজন। পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে, জামাইষষ্ঠীর দিনে গ্রামে আসতে ভয় পাচ্ছেন জামাইরা। অগত্যা লাঠি হাতে পাহাড়ায় নেমেছেন গ্রামবাসীরাই।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কিছুদিন ধরে এলাকায় কয়েকটি হনুমান (Hanuman) দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। গ্রামবাসীদের সন্দেহ, তার মধ্যে থেকে একটি হনুমান অতর্কিত হামলা চালাচ্ছে মানুষের উপর। আক্রমণের ফলে এক যুবক বাড়ির ছাদ থেকে পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হন। একটি হাতও ভেঙে যায় তার। চোখ ও পায়ে গুরুতর আঘাত নিয়ে বেশ কয়েকদিন হাসপাতালে ভর্তিও ছিলেন তিনি। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: আচমকা ভেঙে পড়ল চলন্ত উত্তরবঙ্গ এক্সপ্রেসের এসি! বরাতজোড়ে রক্ষা যাত্রীদের]

এছাড়াও এলাকার বাচ্চাদের আক্রমণ করেছে হনুমানটি। এর পরেই আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়। বাড়ি থেকে বাইরে বেরতে ভয় পাচ্ছেন অনেকে। স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, “এলাকায় মাঝে মধ্যেই হনুমানের আক্রমণ হচ্ছে। আশেপাশের অনেকের উপর হামলা করেছে। আমরা বেশ ভয়ের মধ্যেই আছি।” তেহট্ট (Tehatta) মহকুমা বনদপ্তর আধিকারিক সুদিন দাস বলেন, “হনুমানের আক্রমণে আহত হয়েছে এমন কোনও খবর আমাদের কাছে নেই।  আমরা খোঁজ নিয়ে দেখছি। বিষয়টা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: হাসপাতাল চত্বরেই যুবককে পিটিয়ে মারার অভিযোগ, তুলকালাম চন্দননগরে]

গতবছর নবদ্বীপ পুরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাচীন মায়াপুর এলাকায় হনুমানের ধাক্কায় ছাদ থেকে পড়ে মৃত্য়ু হয় এক গৃহবধূর। ছাদে কাপড় মেলতে গিয়ে হনুমানের ধাক্কায় ভারসাম্য হারিয়ে গৃহবধূ নীচে পড়ে যান। তার পর তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে ওই মহিলাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ