৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

টিটুন মল্লিক, বাঁকুড়া: দলের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন সৌমিত্র খাঁ। বিষ্ণুপুরের বিদায়ী সাসংদ তথা প্রাক্তন তৃণমূল নেতার নাম না করে তোপ দাগলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই লোকসভা কেন্দ্রে দলীয় প্রার্থী শ্যামল সাঁতরাকে ভোট দিয়ে জয়ীযুক্ত করার আহ্বান জানিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। রবিবার দলের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে ভিডিও প্রচারের মাধ্যমে বিশ্বাসঘাতক সৌমিত্রকে ভোট না দেওয়ার আবেদন জানান মুখ্যমন্ত্রী। ভোটারদের উদ্দেশে তাঁর বার্তা, ‘বিজেপির কোনও কুৎসা, কোনও অপপ্রচারে পা দেবেন না। আমরা যাঁকে বিষ্ণুপুরের সাংসদ করেছিলাম, সে দলের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। মনে রাখবেন, বিশ্বাসঘাতকদের রাজনীতিতে কোনও জায়গা নেই।’ নাম না করে সৌমিত্রকেই নিশানা করেছেন মমতা। ভিডিও প্রচারের মাধ্যমে শ্যামল সাঁতরাকে জয়ীযুক্ত করার আবেদন জানান তিনি। বস্তুত, ওই কেন্দ্রে বিজেপির টিকিটে প্রার্থী হয়েছেন সৌমিত্র।

[আরও পড়ুন: বাবুল সুপ্রিয়র বিতর্কিত সেই গান নিষিদ্ধ ঘোষণা করল কমিশন]

রাজ্যের প্রতিটি প্রান্তের তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা তাঁর ছোয়া পেতে চান। দলনেত্রী কী বার্তা দিচ্ছেন তা দেখতে মুখিয়ে থাকেন। কিন্তু একা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পক্ষে তো আর রাজ্যের প্রতিটি প্রান্তে সভা করা সম্ভব নয়। আবার কর্মীদেরও বার্তা দেওয়াটা প্রয়োজন। তাই অভিনব পদ্ধতি বের করেছে রাজ্যের শাসকদল। টার্গেট করা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াকে। যুবসমাজকে কাছে টানতে সোশ্যাল মিডিয়ার থেকে ভাল মাধ্যম আর কিছু হতে পারে না। আর শুধু যুব সমাজ কেন, আট থেকে আশি সকলেই এখন সোশ্যাল মিডিয়া-অ্যাডিক্টেড। তাই, ভোটপ্রচারের অন্যতম সেরা মাধ্যমও সোশ্যাল মিডিয়া। তৃণমূলনেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রীও তাই জনসংযোগের মাধ্যম হিসেবে টার্গেট করছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলিকেই। কী করছেন মমতা? তৃণমূলনেত্রী খোদ নিজের মুখে ভোটারদের কাছে আবেদন জানাচ্ছেন, দলীয় প্রার্থীদের ভোট দিতে। কেন্দ্র ধরে ধরে। প্রত্যেক প্রার্থীর বর্ণনা দিচ্ছেন ছোট ছোট ভিডিওতে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিচ্ছেন কোন প্রার্থী কেমন, কেন তৃণমূলের প্রার্থীকে ভোট দেবেন। সেই সঙ্গে আবেদন জানাচ্ছেন, “সকাল সকাল ভোট দিন, জোড়াফুলে ভোট দিন।” ইতিমধ্যেই তৃণমূল কংগ্রেসের ফেসবুক পেজে বেশ কয়েকটি কেন্দ্রের ভিডিও আপলোড করা হয়েছে। তৃণমূল সূত্রের খবর, রাজ্যের ৪২টি আসন ধরেই তিনি শর্ট ভিডিও বের করবেন।

[আরও পড়ুন: সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারে নয়া আঙ্গিকে মুখ্যমন্ত্রী, হাতিয়ার ‘শর্ট ভিডিও’]

এর আগে মহুয়া মৈত্র, দীনেশ ত্রিবেদীদের ভোট দেওয়ার আবেদন জানিয়েছিলেন। এবার বিষ্ণুপুরের দলীয় প্রার্থী শ্যামল সাঁতরাকে ভোট দেওয়ার আবেদন করতে গিয়ে সৌমিত্রকে বিশ্বাসঘাতক বলে আক্রমণ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং