BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রোগীমৃত্যুর পরই নার্সিংহোম বন্ধের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ, কাঠগড়ায় তৃণমূল নেতা

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 6, 2020 6:41 pm|    Updated: September 6, 2020 6:41 pm

An Images

দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: নার্সিংহোম বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি। এই অভিযোগে কাঠগড়ায় প্রাক্তন তৃণমূল কাউন্সিলর। অভিযোগ, রোগীর মৃত্যুর পর চিকিৎসার খরচ না দিতে চাওয়াকে কেন্দ্র করে তীব্র বচসায় জড়িয়ে পড়েন ওই কাউন্সিলর। ঘটনাটি ঘটেছে শ্রীরামপুর থানার বেল্টিং বাজার এলাকায় জিটি রোডের ধারে একটি নার্সিংহোমে। নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ শ্রীরামপুর থানায় ওই তৃণমূল (TMC) নেতা রাজেশ সাউয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা রাজেশ সাউ অবশ্য ঘটনার কথা অস্বীকার করেছেন।

নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষের দাবি, বুধবার সন্ধেয় এক চিকিৎসকের অনুরোধে বেড না থাকা সত্ত্বেও মানবিকতার কারণে পঞ্চাশোর্ধ ক্যানসার আক্রান্ত মহিলার জন্য আলাদা বেডের ব্যবস্থা করে তাকে ভরতি নেওয়া হয়। মহিলার অবস্থা খুবই সংকটজনক থাকায় তাঁকে কেমো দেওয়া শুরু হয়। তবে ঘন্টাদু’য়েক পর মৃত্যু হয় তাঁর। নিয়ম অনুযায়ী রোগীর পরিবারকে জনানো হয় রোগীর দেহ নিয়ে যাওয়ার জন্য। নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষের অভিযোগ, সেই সময় তৃণমূল নেতা রাজেশ সাউ তাঁর সাঙ্গপাঙ্গদের নিয়ে নার্সিংহোমে হাজির হন। বিল দেবেন না বলে কর্মী, চিকিৎসকদের অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন। নার্সিংহোম ভাঙচুর করতে উদ্যোগী হন। শেষে নার্সিংহোম বন্ধ করে দেওয়ার হুমকিও দেন ওই নেতা।

[আরও পড়ুন: জমি বিবাদের জেরে ভাইকে গুলি, মৃত্যু নিশ্চিত করতে এলোপাথারি ‘কোপাল’ দাদা]

তৃণমূল নেতা রাজেশ সাউ অবশ্য অভিযোগ অস্বীকার করেন। তিনি জানান, লাগামছাড়া বিলের প্রতিবাদ করেছিলেন বলেই তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ আনা হচ্ছে। তিনি কোনওরকম হুমকি ও অশ্লীল কথা বলেননি। তাঁর অভিযোগ, ওই নার্সিংহোমে কেউ মারা যাওয়ার পরও ভেন্টিলেশনে রেখে রোগীর পরিবারকে অস্বাভাবিক বিল দিতে বাধ্য করা হয়। রাজেশবাবুর দাবি, তিনি যদি নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষের সঙ্গে অশালীন আচরণ করে থাকেন তবে সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হোক। শ্রীরামপুর থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে।

[আরও পড়ুন: দেশে PUBG নিষিদ্ধ হওয়ায় মানসিক অবসাদ, কল্যাণীতে আত্মঘাতী আইটিআই ছাত্র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement