১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দাম্পত্যে বাধা দেড় বছরের শিশু, গলা টিপে একরত্তিকে ‘খুন’ সৎ বাবার

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 26, 2022 9:04 am|    Updated: September 26, 2022 9:04 am

Step father allegedly killed his baby in South 24 Pargana । Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: দেড় বছরের শিশুকে শ্বাসরোধ করে খুন করার অভিযোগ। কাঠগড়ায় নিহত শিশুর মায়ের দ্বিতীয় পক্ষের স্বামী। দক্ষিণ ২৪ পরগনার জীবনতলা থানার ঘুটিয়ারি শরীফের পথের শেষ এলাকার ঘটনা। গ্রেপ্তার অভিযুক্ত।

ঘুটিয়ারি শরীফের পথের শেষ এলাকার বাসিন্দা টুকাই দাসের প্রথম পক্ষের সন্তান ওই দেড় বছরের শিশুটি। স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায় তাঁর। দ্বিতীয়বার তপন দাস নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে আবারও বিয়ে করেন টুকাই। সন্তানকে নিজের কাছেই রেখেছিলেন তিনি। তবে তপন চাইত আবারও সন্তান হোক তাদের। নিজের সন্তান থাকায় দ্বিতীয়বার আর মা হতে চাননি টুকাই। স্থানীয়দের দাবি, দেড় বছরের ওই সন্তানকে নিয়ে প্রায়শয়ই টুকাই ও তপনের মধ্যে ঝগড়াঝাটি হত। ক্রমশই তপনের ওই শিশুটির উপর বিতৃষ্ণা তৈরি হচ্ছিল।

[আরও পড়ুন: পুজোর মুখে নতুন করে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনা, গত ২৪ ঘণ্টায় পজিটিভিটি রেট প্রায় সাড়ে ৫%]

অভিযোগ, এই পরিস্থিতিতে স্রেফ রাগের বশে দেড় বছরের শিশুটির গলা টিপে ধরে তপন। তাতেই প্রাণ যায় খুদের। যদও খুনের কথা প্রথমে কাউকেই জানাতে চায়নি সে। পরে টুকাই নিজেই তপনের বিরুদ্ধে সন্তান খুনের অভিযোগে সরব হন। খবর দেওয়া হয় ঘুটিয়ারি শরিফ থানায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়। ঘটনার তদন্তে নেমে অভিযুক্ত তপনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। দাম্পত্য জীবনের পথের কাঁটা সরাতেই খুন বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান পুলিশের।

উৎসবের মরশুমে যেন সব আনন্দই ম্লান। সন্তানের মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছেন টুকাই। কঠিন বাস্তবকে এখনও মানতে পারছেন না তিনি। দ্বিতীয় বিয়ের খেসারত যে এভাবে দিতে হবে, তা স্বপ্নেও ভাবেননি টুকাই। অঝোরে কেঁদেই চলেছেন গৃহবধূ। তপনের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছেন সদ্য সন্তানহারা মা।

[আরও পড়ুন: রাজ-শুভশ্রীর বাচ্চা ‘স্মার্ট’, যুবানের প্রশংসা করে সমালোচকদের একহাত নিলেন মমতা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে