BREAKING NEWS

২৯ শ্রাবণ  ১৪২৭  শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

লিলুয়ায় টিউশন থেকে ফেরার পথে অপহৃত ছাত্রী, গ্রেপ্তার বাবা-সহ ৪

Published by: Bishakha Pal |    Posted: March 3, 2020 3:28 pm|    Updated: March 3, 2020 3:28 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লিলুয়ায় ছাত্রীকে অপহরণের ঘটনায় দুই মহিলা-সহ চার জনকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। ধৃতদের মধ্যে অপহৃত ছাত্রীর বাবা রয়েছেন বলেও খবর।

সোমবার রাত ৮টা ৫০ মিনিট নাগাদ লিলুয়ার বেলগাছিয়া-বেনারস রোডে ঘটনাটি ঘটে। প্রাইভেট টিউশন থেকে বাড়ি ফেরার পথে এক ছাত্রীকে অপহরণ করে বেশ কয়েকজন দুষ্কৃতী। ছাত্রীর নাম রাশি খাতুন। স্থানীয় একটি স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী সে। সোমবার রাতে বাড়ি ফেরার পথে তার সঙ্গে ছিলেন তার মা। তাঁকেও অপহরণ করে দুষ্কৃতীরা। অপবৃত ওই মহিলার নাম সুনিতা বিবি। মেয়ে রাশি খাতুন তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী। অভিযোগ, বেলগাছিয়া-বেনারস রোড দিয়ে যখন দু’জন বাড়ির দিকে আসছিলেন, তখন তাঁদের সামনে আচমকাই একটি টাটা সুমো গাড়ি এসে দাঁড়ায়। গাড়িতে যখন মা ও মেয়েকে তোলা হচ্ছিল, বাঁচার জন্য চিৎকার করতে শুরু করে তারা। কিন্তু জায়গাটি ছিল বেশ নির্জন। ফলে লোকজন ছিল কম। তাই স্থানীয়রা আসতে আসতে গাড়ি দু’জনকে তুলে নিয়ে বেরিয়ে যায়।

[ আরও পড়ুন: হ্যাম রেডিওর সৌজন্যে ৩০ বছর পর বাড়ি ফিরলেন বৃদ্ধা, খুশির জোয়ার পরিবারে ]

জায়গাটিতে আলো কম থাকায় গাড়ির নম্বরও স্পষ্ট দেখতে পাননি স্থানীয়রা। তবু নিজেদের ধারণা অনুযায়ী লিলুয়া থানায় গোটা ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্ট জানানো হয়। সঙ্গে সঙ্গেই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। ঘটনাস্থলে মেয়েটির ব্যাগ পড়েছিল। সেখান থেকেই নাম-ঠিকানা পায় পুলিশ। জানা যায়, এই ছাত্রীর বাড়ি লিলুয়ার পচাখাল এলাকায়। এরপর সেদিকে রওনা দেয় পুলিশ। এলাকায় জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পারে, সুনীতা বিবির সঙ্গে তাঁর স্বামীর ঝগড়া লেগেই থাকত। তাই মেয়েকে নিয়ে আলাদা থাকতেন সুনীতা। এই ঘটনার পর পুলিশের সন্দেহ গিয়ে পড়ে সুনীতার স্বামীর উপর। মঙ্গলবার সকালে ওই ছাত্রীর বাবাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পাশাপাশি এই ঘটনায় আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার মধ্যে দু’জন মহিলা।

[ আরও পড়ুন: ‘দাঙ্গা চাই না, ভাত চাই’, কালিয়াগঞ্জের সভা থেকে বিজেপিকে হুঁশিয়ারি মমতার ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement