BREAKING NEWS

২ মাঘ  ১৪২৮  রবিবার ১৬ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

চার বছরের পুত্রসন্তানকে পুকুরে ডুবিয়ে খুন, আত্মঘাতী বাবা

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: December 3, 2018 3:32 pm|    Updated: December 3, 2018 3:33 pm

Suicide father, After four-year-old son was drowned in water

ছবি: প্রতীকী

রাজা দাস, বালুরঘাট: নিজের চার বছরের পুত্রসন্তানকে পুকুরের জলে ডুবিয়ে সন্তানকে খুন করল বাবা৷ পেশাদার খুনিকে হার মানিয়ে গাছের ডালে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে সে৷ সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে মাল ব্লকের রাজাডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বারোঘড়িয়া গ্রামের শিমুলতলায়৷

[কনস্টেবল খুনে যাবজ্জীবন কর্ণের, ১০ বছরের কারাদণ্ড সঙ্গীর]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত শিশু পুত্র অভিরাজ জন্মের পর থেকে এক অদ্ভুত রোগে ভুগছিল। জন্ম থেকেই ওই শিশুটির কোনও মলদ্বার ছিল না। নাভির উপরে থাকা একটি ছিদ্র দিয়ে মলত্যাগ করত সে৷ এমাসেই অস্ত্রোপচার হওয়ায় কথা ছিল। সম্ভবত, টাকাপয়সা জোগাড়ের ভাবনায় চিন্তিত হয়ে পড়েছিলেন শিশুর বাবা পণ্ডিত৷ শিশুটির বাবা রবিবার গভীর রাতে তার স্ত্রীকে রান্না করতে বলে। অভিযোগ, স্ত্রী রান্নাঘরে গেলে শিশুপুত্র অভিরাজকে নিয়ে পাশের পুকুরে যায়। সেখানে জলে ডুবিয়ে মারা হয় বলে অভিযোগ। এরপরই পুকুর লাগোয়া এক গাছের ডালে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হয় ওই ব্যক্তি৷ সোমবার সকালে খবর পেয়ে ক্রান্তি থানার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহ দু’টি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়৷

[কুলতলির ম্যানগ্রোভ জঙ্গলে বাঘের হামলা, প্রাণহানি মৎস্যজীবীর]

অন্যদিকে, রবিবারও এমন একটি ঘটনার সাক্ষী থেকেছেন মুর্শিদাবাদের সালার থানার সরমস্তিপুরের পূর্বপাড়া এলাকার বাসিন্দারা৷ পরপর কন্যাসন্তান জন্ম হওয়ার ‘অপরাধে’ মায়ের কোল থেকে সদ্যোজাতকে কেড়ে আছড়ে মারে বাবা৷ অভিযোগ, গত বৃহস্পতিবার আব্বাস আলি  তার স্ত্রীর সঙ্গে অশান্তির পর ছয় মাসের কন্যা ফারহা সুলতানাকে মায়ের কোল থেকে তুলে আছাড় মারে। তাকে প্রথমে কান্দি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ওইদিনই সেখান থেকে কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় শিশুটিকে। অবস্থার অবনতি হওয়ায় শনিবার শিশুটিকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। ওইদিন রাতেই মারা যায় শিশুটি। সালার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃতের মা সেলিনা বিবি ওরফে আমেনা। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। অভিযুক্তের খোঁজে চলছে তল্লাশি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে