BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

সিভিক ভলান্টিয়ার নয়, ২৪ ঘণ্টা পুলিশ প্রহরার আরজি গঙ্গারামপুরের নির্যাতিতার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: February 6, 2020 11:42 am|    Updated: February 6, 2020 11:42 am

The heckled teacher at Gangarampur appeals for police posting at house

রাজা দাস, বালুরঘাট: সিভিক ভলান্টিয়ার নয়, নিরাপত্তার জন্য ২৪ ঘণ্টা বাড়ির সামনে পুলিশ কর্মী বসানোর আরজি জানালেন গঙ্গারামপুরের নিগৃহীতা শিক্ষিকা স্মৃতিকণা দাস। বুধবার ডিস্ট্রিক্ট লিগ্যাল অথরিটির (ডিএলএসএ) কাছে এই আবেদন জানিয়েছেন তিনি। এদিকে, এখনও অধরা উপপ্রধান-সহ বাকি দুই অভিযুক্ত। তাদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে শাস্তির দাবিতে, আজ বিজেপির আন্দোলন কর্মসূচি রয়েছে গঙ্গারামপুরে।

জমি বিবাদের জেরে গঙ্গারামপুরের নন্দনপুরে শিক্ষিকা স্মৃতিকণা দাস ও তাঁর দিদিকে হাত-পায়ে দড়ি বেঁধে মারধরের ঘটনায় তোলপাড় দেশ। সোমবার কলকাতা হাইকোর্ট থেকে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা আইনি পরিষেবা কর্তৃপক্ষ অর্থাৎ ডিস্ট্রিক্ট লিগ্যাল অথারিটির কাছে রিপোর্ট তলব করা হয়। পরেরদিন নির্যাতিতা মহিলার বাড়িতে যান জেলা আইনি পরিষেবা কেন্দ্রের সম্পাদিকা কুসুমিকা দে মিত্র। নির্যাতিতার সঙ্গে দেখা করে কথা বলেন। সরকারিভাবে ওই মহিলার জমির মাপজোক করা হয়। নিরাপত্তার জন্য দু’জন সিভিক ভলান্টিয়ারকে সারাক্ষণের জন্য মোতায়েন করা হয়েছে নির্যাতিতার বাড়ির সামনে। যে কোনও প্রয়োজনে ফোনে পুলিশকে খবর দেওয়ার কথাও বলা হয়।

[আরও পড়ুন: পদ্মশ্রীর অর্থে বিনামূল্যে পরিষেবা দেবেন ‘সুন্দরবনের সুজন’ চিকিৎসক অরুণোদয় মণ্ডল]

তা সত্ত্বেও আতঙ্ক কাটেনি স্মৃতিকণা দেবীর। বুধবার সকাল হতেই তিনি ডিস্ট্রিক্ট লিগ্যাল অথরিটিকে ফোন করেন নিরাপত্তা বাড়ানোর জন্য। মাত্র দুজন সিভিক ভলান্টিয়ার মোতায়েন করে যথাযথ নিরাপত্তা দেওয়া সম্ভব নয় বলে দাবি তাঁর। তিনি বলেন, “আমার ও পরিবারের লোকের নিরাপত্তায় দু’জন সিভিক ভলান্টিয়ার সারাক্ষণের জন্য বসানো হয়েছে। গতরাতে পুলিশ টহল দিয়ে গেছে। কিন্তু তাতে আতঙ্ক কাটছে না। কেননা, এখানে মূল অভিযুক্ত উপপ্রধান ও তাঁর লোকেরা ঘুরছে বলে তাঁর কাছে খবর আছে। সেখানে মাত্র দু’জন সিভিক দিয়ে কিভাবে নিরাপত্তা পাবেন।” জেলাশাসক নিখিল নির্মল বলেন, “মহকুমা শাসককে বিষয়টি দেখতে বলা হয়েছিল। সেই রিপোর্ট পেয়েছেন। নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই মূহূর্তে কী সমস্যা তা দেখে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।”

[আরও পড়ুন: স্ত্রীকে খুন করে দীর্ঘক্ষণ দেহ আগলে স্বামী, চাঞ্চল্য বাগনানে]

এদিকে, ওই মহিলা ও তাঁর দিদিকে নিগ্রহের ঘটনায় মূল অভিযুক্ত উপ প্রধান অমল সরকার-সহ বাকি দু’জনকে গ্রেপ্তারের দাবিতে আন্দোলনে নামছে বিজেপি। বৃহস্পতিবার বিজেপি মহিলা মোর্চার নেতৃত্বে গঙ্গারামপুর থানার সামনে অবস্থান বিক্ষোভের ডাক দেওয়া হয়েছে। একই ইস্যুতে বালুরঘাটে জেলা পুলিশ সুপারের কাছে এদিন ডেপুটেশন দেবে বিজেপি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে