BREAKING NEWS

১৬ ফাল্গুন  ১৪২৭  সোমবার ১ মার্চ ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ভাঙা স্মার্টফোনের টাকা না দেওয়ায় বন্ধুর হাতে খুন যুবক

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: September 16, 2018 6:47 pm|    Updated: September 16, 2018 6:47 pm

An Images

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: ভেঙে ফেলা স্মার্টফোনের টাকা না দেওয়ায় কেন্দ্র করে বিবাদ৷ বিবাদকে কেন্দ্র করে বন্ধুর হাতে যুবক খুন৷ রবিবারের এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে পাণ্ডবেশ্বরে৷ বন্ধুকে খুনের ঘটনায় মূল অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷

[জেলায় জেলায় বিশ্বকর্মা: বাতিল লোহায় ভ্যানো তৈরি করে দিন গুজরান প্রৌঢ়ের]

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ইসিএলের হরিপুর কোলিয়ারির পুরাতন সেন্টারের বাসিন্দা জয়রাম সিং মাস সাতেক আগে তারই বন্ধু শাহজাদ আলির নতুন স্মার্টফোনটি ভেঙে ফেলেন৷ নতুন ফোন ভেঙে যাওয়ার কারণে টাকা মিটিয়ে দেওয়ার দাবি জানান শাহজাদ৷ রাজিও হয় জয়রাম৷ কিন্তু, পরে টাকা না দেওয়ায় দুই বন্ধুর মধ্যে তীব্র বাগ-বিতণ্ডা শুরু হয়৷ স্থানীয় বাসিন্দাদের সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার সন্ধ্যায় শাহজাদকে ঘরে ডাকে জয়রাম৷ দু’জনেই মদ্যপান করেন৷ মাঝরাতে আচমকাই জয়রামের ঘর থেকে চিৎকার ভেসে আসে৷ স্থানীয়রা প্রথমে গুরুত্ব না দিলেও এর কিছুক্ষণ পরই ফের শুরু হয় চিৎকার৷ প্রতিবেশীরা ঘরের মধ্যে জয়রামের গলা কাটা মৃতদেহ দেখতে পান৷ খবর দেওয়া হয় পাণ্ডবেশ্বর থানার পুলিশকে৷ তারা মৃতদেহ উদ্ধার করে৷ এরপরই পুলিশ স্থানীয় বাসিন্দাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পাশের ঘরেই হদিশ পায় শাহজাদের৷ তার সারা শরীরে রক্তের দাগ ও টাটকা আঘাতের চিহ্ন দেখে সন্দেহ হয় পুলিশের৷ আটক করে নিয়ে যাওয়া হয় থানায়৷ পরে পুলিশ গ্রেপ্তার করা হয় শাহাজাদকে৷ পুলিশি জেরায় অভিযুক্ত খুনের দায় স্বীকারও করেছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর৷

[দৃষ্টিশক্তি ক্ষীণ, নিপুণ হাতে মহরমের তাজিয়া ও ঘোড়া বানাচ্ছেন প্রসাদ কাহার]

পুলিশ জানিয়েছে, ফোনের দাম দীর্ঘদিন ধরে না পাওয়ার ফলেই খুন হতে হয় জয়রামকে৷ ধারে ফোন কিনে পরে তা ব্যবহার করতে পারেনি শাহাজাদ৷ এমনকি, ধার শোধ করার জন্যে শাহজাদের উপর চাপ বাড়ছিল৷ টাকা না পেয়েই খুন বলে পুলিশ মনে করছে৷ ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি ছুরিও উদ্ধার করেছে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement