১৪  আষাঢ়  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সাতসকালে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা খড়গপুরে, ছাগলবোঝাই পিক আপ ভ্যানের চাকায় পিষে মৃত্যু ৩ বালকের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 4, 2022 12:54 pm|    Updated: January 4, 2022 12:54 pm

Three boys killed after run over by a pickup van in Kharagpur | Sangbad Pratidin

ছবি:‌ প্রতীকী

অংশুপ্রতিম পাল, খড়গপুর: সাতসকালেই খড়গপুরে (Kharagpur) মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনায় প্রাণ হারাল তিন বালক। ছাগলবোঝাই একটি পিক আপ ভ্যান বেপরোয়া গতিতে চালাতে গিয়ে তাদের পিষে (Run Over) দেয়। চিলখানা বসতি এলাকায় পিক আপ ভ্যানের ধাক্কায় গুরুতর জখম একজন। তাকে চিকিৎসার জন্য প্রথমে খড়গপুর মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করা হয়। তারপর তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় কলকাতায় (Kolkata) স্থানান্তরিত করা হচ্ছে। এমন মর্মান্তির ঘটনা ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে খড়গপুর টাউন এলাকা। পালটা পিক আপ ভ্যানটিতে ভাঙচুর চালায় জনতা।

ঘটনা সূত্রপাত সকাল সাড়ে ৯টা নাগাদ। খড়গপুরের জনতা মার্কেট এলাকার মাঠে বাচ্চারা খেলছিল। এমন সময়ে ছাগলবোঝাই একটি পিক আপ ভ্যান সজোরে গিয়ে ধাক্কা দেয় বাচ্চাদের। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তিনজনের। একজন গুরুতর জখম। স্থানীয় বাসিন্দা শেখ জাভেদের কথায়, ”ছাগলবোঝাই গাড়িটা সোজা গিয়ে বাচ্চাদের ধাক্কা দেয়। তিনজন গাড়ির ধাক্কায় মারা গিয়েছে। আরেকজন হাসপাতালে ভরতি। তবে তারও বাঁচার আশা নেই।” তিনি জানান, নিহত শিশুদের বয়স ১০ থেকে ১১ বছর।

[আরও পড়ুন: Coronavirus: মহামারী থেকে বাঁচতে রক্ষাকবচ কলকাতা পুলিশের, তৈরি নিজস্ব প্যাথলজি সেন্টার-ওষুধের দোকান]

দুর্ঘটনার (Accident) পর মাঠে নাবালকদের দেহ পড়ে থাকতে দেখে শিউড়ে ওঠেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁরা পালটা ওই পিক আপ ভ্যানে ভাঙচুর চালান। ততক্ষণে অবশ্য চালক বিপদ বুঝে পলাতক। তার সন্ধানে নেমেছে পুলিশ। সকালে এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় চিলখানা বসতি এলাকায় তুমুল উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারা জানাচ্ছেন, ওই রাস্তায় এভাবে গাড়ি চালানো নিষিদ্ধ। তা সত্ত্বেও কেন ছাগলবোঝাই ভ্যানটি গতি বাড়িয়ে ঢুকে এল, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন স্থানীয়রা। খেলতে গিয়ে বাড়ির  ছেলেদের এভাবে মর্মান্তিক মৃত্যুতে শোকে পাথর পরিবার। 

[আরও পড়ুন: ছিঃ! মৃত্যুর পরও থামেনি ধর্ষণ! রাজস্থানের আদিবাসী কিশোরীর পরিণতিতে চাঞ্চল্য]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে