Advertisement
Advertisement
Sayantika Banerjee

প্রার্থী হয়েই প্রচারে ঝড় তুললেন সায়ন্তিকা, চ্যালেঞ্জ বিজেপিকে

'বিরোধী প্রার্থী শক্তিশালী হলে তবেই লড়াই করতে ভালো লাগবে', বললেন সায়ন্তিকা।

TMC Candidate Sayantika Banerjee Campaign her constitution Baranagar

সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Published by: Amit Kumar Das
  • Posted:March 31, 2024 12:15 am
  • Updated:March 31, 2024 12:15 am

অর্ণব দাস, বারাকপুর: বরানগর বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনে সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Sayantika Banerjee) প্রার্থী করেছে তৃণমূল। প্রার্থী হিসাবে নাম ঘোষণা হওয়ার পরের দিনই নিজের নির্বাচনী এলাকায় প্রচারে নামতে দেখা গেল তাঁকে। এদিন প্রচারে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নকে হাতিয়ার করার পাশাপাশি প্রতিপক্ষ বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ জানালেন সায়ন্তিকা। বললেন, “বিরোধী প্রার্থী যত বেশি শক্তিশালী হবেন, রাজনৈতিক ময়দানে লড়াই করতে তত বেশি ভালো লাগবে।”

শনিবার বিকেলে নিজের কেন্দ্র বরানগরের টপিন রোড সংলগ্ন সেবা সংঘ ক্লাবে দলীয় নেতা কর্মী-সহ সংগঠকদের সঙ্গে পরিচয় পর্ব সারেন সায়ন্তিকা। সেখানে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী সুজিত বসু, দমদম কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী সৌগত রায়, বারাকপুর কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী পার্থ ভৌমিক-সহ পুরসভার চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান একাদিক কাউন্সিলর সহ অন্যান্য নেতৃত্বরা। এদিন তারকা প্রার্থীকে ঘিরে দলের কর্মী সমর্থকদের উচ্ছ্বাস উদ্দীপনা ছিল চোখে দেখার মতো। দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ পর্ব সেরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সায়ন্তিকা বলেন, “বিরোধী প্রার্থী যত বেশি শক্তিশালী হবেন, রাজনৈতিক ময়দানে লড়াই করতে তত বেশি ভালো লাগবে। যারা আমার বিরুদ্ধে ব্যক্তিগত আক্রমণ করছে তাদের দলের আদর্শই হয়তো এটা। তারা হয়ত মনে করে ব্যক্তিগত আক্রমণ করলেই রাজনৈতিক ভাবে শক্তিশালী হওয়া যায়। আমরা এই শিক্ষা পাইনি। তাই আমি বা আমাদের নেতৃত্বরা ব্যক্তিগত আক্রমণ করে না। আমরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়ন নিয়েই কথা বলি।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘ছাপরির বউ ছাপরি’, হার্দিকের ‘দুর্দিনে’ নেটিজেনদের কটাক্ষের শিকার স্ত্রী নাতাশা]

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের বিধানসভা ভোটে প্রথমবার টিকিট পান সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায় (Sayantika Banerjee)। বাঁকুড়া বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী হয়েছিলেন। বিজেপি প্রার্থী নীলাদ্রিশেখর দানার কাছে হেরে যান। তবে ভোটে হারলেও জমি আঁকড়ে পড়েছিলেন বাঁকুড়ায়। অভিনেত্রীকে সাংগঠনিক দায়িত্ব দেওয়া হয়। দলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদিকা করা হয়। যদিও লোকসভা ভোটে টিকিট পাননি। তবে বিধানসভা উপনির্বাচনে বরানগর থেকে এবার টিকিট দেওয়া হয়েছে তাঁকে। অন্যদিকে, এই কেন্দ্রে বিজেপির তরফে প্রার্থী করা হয়েছে সজল ঘোষকে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: নজরে নির্বাচন, এপ্রিলের গোড়াতেই উত্তরবঙ্গ সফরে মমতা]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ