BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

অমিত শাহের মাল্যদানের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই বিরসা মুন্ডার প্রতিকৃতির শুদ্ধিকরণ তৃণমূলের

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 6, 2020 1:50 pm|    Updated: November 6, 2020 8:29 pm

An Images

টিটুন মল্লিক, বাঁকুড়া: পুয়াবাগান এলাকায় পুরুলিয়া-বাঁকুড়া রাজ্য সড়কের চৌমাথায় থাকা বিরসা মুন্ডার প্রতিকৃতির পাদদেশে বিক্ষোভ দেখাল। বৃহস্পতিবারই ওই মূর্তিতে মালা দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)। শুধু বিক্ষোভই নয়, শুক্রবার সকালে তৃণমূলের তরফে ওই মূর্তিটিকে জল দিয়ে ধুয়ে মুছে সাফ করা হয়। তৃণমূলের এহেন কর্মকাণ্ড শীতের শুরুতে পশ্চিমাঞ্চলের বাঁকুড়া জেলায় রাজনীতির পারদ চড়িয়েছে তা বলাই বাহুল্য।

এদিন এই কর্মসূচিতে গিয়ে বাঁকুড়া জেলা পরিষদের মেন্টার অরূপ চক্রবর্তীও যোগ দেন। তিনি বলেন, “বিজেপি  (BJP) ভেবেছিল দিল্লি থেকে নেতা আমদানি করে রাজপথে পতাকা, ব্যানার, হোর্ডিং ও পোস্টার লাগিয়ে শহরের দখল নেবে। কিন্তু সে গুড়ে বালি। জানে না আমরাই আছি, আমরাই থাকবো।” একই সুর পাবনা জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি শ্যামল সাঁতরার গলাতেও। শ্যামলবাবুও বাঁকুড়া-পুরুলিয়া রাজ্য সড়কের চৌমাথায় বিরসা মুন্ডার প্রতিকৃতি এদিন জল দিয়ে ধুয়ে মুছে সাফ করেন। কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন বাঁকুড়া জেলা পরিষদের বর্তমান জেলা সভাধিপতি মৃত্যুঞ্জয় মুর্মু। তাঁর কথায়, “বর্তমান কেন্দ্রের বিজেপি সরকার আদিবাসীদের উন্নয়নে কোনও টাকা বরাদ্দ করছে না। সমস্ত অনুদান বন্ধ করে দিয়েছে। করোনার (Coronavirus) আগে ১০০ দিনের কাজেও তেমন টাকা দেয়নি এই জঙ্গলমহলে। বর্তমানে ভোটের আগে রাজনীতি করতে দিল্লি থেকে নেতা আমদানি করছে বিজেপি। আদিবাসীদের ঘরে কলাপাতায় ১৬০০ টাকা কেজির পোস্ত বড়া ও আলু পোস্ত দিয়ে ভাত খেয়ে গেলেন বিজেপি নেতা।” এদিকে আদিবাসী সামাজিক সংগঠন ভারত জাকাত মাঝি পরগনা মহলের নেতা সনগিরি হেমব্রমের দাবি, গতকাল অমিত শাহ যে প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান তা আদতে বিরসা মুণ্ডার নয়। ওই প্রতিকৃতির পায়ের কাছে রাখা ছিল বীর শহীদদের ছবি! যা নিয়ে দানা বেঁধেছে বিতর্ক। 

[আরও পড়ুন: হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা রোগীদের চিকিৎসা করবেন স্থানীয় চিকিৎসকরাই! নয়া উদ্যোগ হাওড়ায়]

উল্লেখ্য, আসন্ন নির্বাচনকে পাখির চোখ করে এগোচ্ছে প্রত্যেকটি রাজনৈতিক দল। বাংলা দখলে মরিয়া বিজেপি। তাই নির্বাচনের আগে দু’দিনের বঙ্গ সফরে অমিত শাহ। বৃহস্পতিবার বাঁকুড়ায় (Bankura) একগুচ্ছ কর্মসূচি ছিল তাঁর। এদিন এক আদিবাসীর বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজও সারেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বিজেপির মধ্যাহ্নভোজের জনসংযোগ কর্মসূচি নিয়ে বিভিন্ন মহলে চলছে জোর আলোচনা। গেরুয়া শিবির ‘জাতপাতের রাজনীতি’ করছে বলেই দাবি বিরোধীদের। তবে তাতে কান দিতে নারাজ বিজেপি। শুক্রবার মতুয়া বাড়িতে খাওয়াদাওয়া সারবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

[আরও পড়ুন: শেষ দুর্গাপুর ব্যারেজের মেরামতির কাজ, ৬ দিন পর স্বাভাবিকের পথে পানীয় জল পরিষেবা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement