BREAKING NEWS

২৯ চৈত্র  ১৪২৭  সোমবার ১২ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

নন্দীগ্রামে ভোটার তালিকায় নাম তুলতে ভুয়ো তথ্য! শুভেন্দুর ভোটাধিকার বাতিলের দাবিতে কমিশনে তৃণমূল

Published by: Paramita Paul |    Posted: March 17, 2021 3:21 pm|    Updated: March 17, 2021 4:04 pm

An Images

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: ‘ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হোক বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারীর নাম। বাতিল হোক তাঁর প্রার্থীপদও।’ এই দাবিতে বুধবার নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিল তৃণমূল। ঘাসফুল শিবিরের অভিযোগ, হলদিয়া এবং নন্দীগ্রাম- এই দুই এলাকার ভোটার তালিকায় নাম রয়েছে বিজেপি প্রার্থীর। কিন্তু মনোনয়ন দাখিলের সময় নিজেকে নন্দীগ্রামের বাসিন্দা হিসেবে উল্লেখ করেছিলেন শুভেন্দু। এদিকে নন্দীগ্রামের ভোটার তালিকায় শুভেন্দুর (Suvendu Adhikari) নাম বৈধভাবে তোলা হয়নি বলেও অভিযোগ তৃণমূলের।

একুশের নির্বাচনের হটস্পট নন্দীগ্রাম (Nandigram)। এই কেন্দ্রেই এবার সম্মুখ সমরে তৃণমূলের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বিজেপির শুভেন্দু অধিকারী। প্রথমদিন থেকেই একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন।এমনকী, মমতার প্রার্থী পদ বাতিলের দাবিতে কমিশনে গিয়েছিলেন শুভেন্দু। কিন্তু নাম বিভ্রাটে ল্যাজে গোবরে অবস্থা হয় বিজেপির। এবার পালটা শুভেন্দুর প্রার্থীপদ বাতিলের দাবি জানাল তৃণমূলও।

[আরও পড়ুন : ‘বিহারের লোক টিকা পেল না কেন?’ ঝাড়গ্রাম থেকে বিজেপির বিরুদ্ধে ‘মিথ্যাচারে’র অভিযোগ মমতার]

ঘাসফুল শিবিরের দেওয়া চিঠি অনুযায়ী, শুভেন্দু অবৈধভাবে নন্দীগ্রামের ভোটার তালিকায় নিজের নাম তুলেছেন। তিনি নিজেকে নন্দনায়কবর গ্রামের বাসিন্দা বলে ঘোষণা করেছিলেন। কিন্তু সংশ্লিষ্ট এলাকার বিএলও বিজলি গিরি রাও জানিয়েছিলেন, গত ছ’মাস নন্দনায়কবর গ্রামের নির্দিষ্ট বাড়িতে দেখা যায়নি শুভেন্দুকে। তাই তাঁকে ওই এলাকার বাসিন্দা হিসেবে গণ্য করা যাবে না বলে্ জানিয়েছিলেন বিজলি গিরি রাও। এমনকী, প্রয়োজনীয় দু’টি সরকারি নথিও তিনি দিতে পারেননি বলেও জানিয়ে দিয়েছিলেন বিএলও। সেই নথিকে হাতিয়ার করে এবার কমিশনের দ্বারস্থ তৃণমূল।

সরকারি নিয়ম বলছে, ভারতীয় নাগরিক হলেই বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারেন। সেক্ষেত্রে হলদিয়ার বাসিন্দা হলেও নন্দীগ্রাম থেকে প্রার্থী হওয়ায় বাধা নেই শুভেন্দুর। তবে তথ্য গোপন করা, ভুল তথ্য দেওয়ার অভিযোগে শুভেন্দুর ভোটার তালিকা থেকে নাম বাতিল এবং তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করার দাবি জানিয়েছে তৃণমূল।

[আরও পড়ুন : ‘আমি যাওয়ার আগেই বন্ধ করব বিশ্বভারতী’, উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর মন্তব্যে বিতর্কের ঝড়]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement