BREAKING NEWS

২১ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৬ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

আমফানের ত্রাণ পাইয়ে দেওয়ার নামে গৃহবধূকে ‘ধর্ষণ’, কাঠগড়ায় তৃণমূল নেতা

Published by: Sayani Sen |    Posted: July 6, 2020 9:05 pm|    Updated: July 6, 2020 9:05 pm

An Images

দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: আমফানের (Amphan) ক্ষতিপূরণের টাকা পাইয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এক তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে হুগলির সিঙ্গুরের বোড়াই পহলামপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের মহম্মদপুরে। ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসতেই ওই তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। 

নির্যাতিতার অভিযোগ, আমফানে টালির চালের বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। স্থানীয় তৃণমূল নেতা রমেশ পালকে একটা ত্রিপল দেওয়ার অনুরোধ জানান নির্যাতিতা। ত্রাণেরও দাবি জানান তিনি। কিন্তু অভিযুক্ত ওই নেতা তাঁকে ক্ষতিপূরণ পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় লেগেছে রাজনীতির রং। সোমবার নির্যাতিতা ওই গৃহবধূর সঙ্গে দেখা করেন অগ্নিমিত্রা পাল (Agnimitra Paul)। সিঙ্গুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। বিজেপি নেত্রীর নেতৃত্বে সিঙ্গুর থানার সামনে প্রায় ঘন্টাখানেক রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান দলীয় নেতারা নেতাকর্মীরা।

[আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যুতে রেকর্ড, রাজ্যে মোট সংক্রমিত প্রায় ২৩ হাজার মানুষ]

সোমবার সিঙ্গুর থানায় বিক্ষোভ কর্মসূচি থেকে বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল বলেন, “প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ পেতে হলে বিনিময়ে তৃণমূলের কুপ্রস্তাবে সাড়া দিতে হবে।” পাশাপাশি সিঙ্গুরের তাপসী মালিকের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বলেন, “তাপসী মালিকের পরিবার আজও বিচার পায়নি। কারণ তৃণমূল নেত্রী সুযোগ বুঝে সিংহাসনে বসার জন্য ব্যবহার করেছেন। ব্যবহার করার পর ছিবড়ে করে ছুঁড়ে ফেলে দিয়েছেন।” অগ্নিমিত্রা পলের আক্রমণের পালটা জবাব দিয়েছেন সিঙ্গুর ব্লক তৃণমূল সভাপতি মহাদেব দাস। তিনি বলেন, “পুলিশি তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে আইনমাফিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তৃণমূল কোনও অপরাধীকে আড়াল করবে না।”

[আরও পড়ুন: জেলা নেতৃত্বকে অগ্রাহ্য? কোর কমিটির বৈঠকে মহুয়ার অনুপস্থিতি নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement