১ শ্রাবণ  ১৪২৬  বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যে ফের খুন তৃণমূল নেতা৷ মুর্শিদাবাদের ডোমকলের পর এবার ঘটনাস্থল হুগলির খানাকুল৷ বিজেপির মদতেই পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যকে পিটিয়ে খুন করা হয়েছে বলেই অভিযোগ পরিবারের৷ যদিও গেরুয়া শিবিরের তরফে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে৷ তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে খুন বলেই পালটা দাবি বিজেপির৷ তৃণমূল নেতা খুনের ঘটনার তদন্তে নেমে ইতিমধ্যেই চারজনকে আটক করেছে পুলিশ৷

[ আরও পড়ুন: ২ দিনের মধ্যে রাজ্যে ঢুকছে বর্ষা, ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা উত্তরবঙ্গে]

হুগলির আরামবাগের হরিশচকের বাসিন্দা মনোরঞ্জন পাত্র৷ খানাকুল ২ পঞ্চায়েত সমিতির তৃণমূল সদস্যও ছিলেন তিনি৷ প্রতিদিন বিকেলের পর খেত ঘুরে দলীয় কার্যালয়ে গিয়েই বসে থাকতেন মনোরঞ্জন৷ শনিবারও তার অন্যথা হয়নি৷ কিন্তু রাত বাড়তে থাকলেও বাড়ি ফেরেননি ওই তৃণমূল নেতা৷ পরিজনেরা খোঁজখবর শুরু করেন৷ খেত, দলীয় কার্যালয় কোথাও খুঁজে পাওয়া যায়নি তাঁকে৷ মনোরঞ্জনের পরিজন-প্রতিবেশীরা গোটা এলাকাজুড়েই তল্লাশি অভিযান শুরু করেন৷ বেশ কিছুক্ষণ খোঁজাখুঁজির পর দলীয় কার্যালয়ের পাশ থেকেই উদ্ধার হয় ওই তৃণমূল নেতার দেহ৷ খবর দেওয়া হয় থানায়৷ পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়৷ উদ্ধারের সময় রক্তে ভেসে যাচ্ছিল গোটা শরীর৷ দেহের একাধিক অংশে মিলেছে গভীর ক্ষতচিহ্ন৷ মাথার পিছনেও রয়েছে আঘাতের স্পষ্ট প্রমাণ৷ প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, কেউ বা কয়েকজন মাথায় ভারী কোনও বস্তু দিয়ে আঘাত করেই খুন করেছে মনোরঞ্জনকে৷

[ আরও পড়ুন: তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে কল্যাণীতে চলল গুলি-বোমা, গুরুতর জখম ১]

স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, সপ্তাহখানেক আগে এলাকাতেই প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়েছিল মনোরঞ্জন পাত্রকে৷ তবে তাতে আমল দেননি একনিষ্ঠ তৃণমূল নেতা৷ তাই ভোট মিটতেই খুন করা হয়েছে খানাকুল ২ পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যকে৷ বিজেপির অঙ্গুলিহেলনেই এমন মর্মান্তিক ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলেও দাবি ঘাসফুল শিবিরের৷ খুনের ঘটনায় মৃতের পরিবারের তরফে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে৷ ইতিমধ্যেই ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ৷ আটক হওয়া ওই চারজনই বিজেপির সঙ্গে জড়িত বলেই দাবি মৃতের পরিবারের৷ প্রত্যেকের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছেন তাঁরা৷ তবে বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, মনোরঞ্জন পাত্রের খুনের নেপথ্যে রয়েছে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব৷ এদিকে, রবিবার বিকেলে নিহতের বাড়ি যাওয়ার কথা যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং