২ শ্রাবণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক্যালেন্ডারের পাতায় বর্ষা ঋতুর আভাস থাকলেও রাজ্যবাসীর কাছে ওখনও অধরাই রয়ে গিয়েছে বৃষ্টিসুখ। আগামী কয়েকদিনে বেশ কয়েকবার আকাশের মুখভার দেখলেও সেভাবে বৃষ্টির দেখা মেলেনি। মাঝে মধ্যে দু-এক পশলা বৃষ্টিতে ভিজলেও তীব্র গরমের হাত থেকে কিন্তু রেহাই পায়নি দক্ষিণবঙ্গবাসী। দিন দুয়েক আগে, রাতে বৃষ্টি হলেও সকাল হতেই কড়া রোদে ফের তেতেছে শহর। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে গরমও। গত কয়েকদিনে দক্ষিণবঙ্গে আর্দ্রতাজনিত সমস্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে আরও। তবে, রবিবার আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে পাওয়া গেল স্বস্তির খবর।

[আরও পড়ুন: বালি ও কয়লা থেকে টাকা তোলা ব্যক্তিদের সুরক্ষা দেব না, হুঁশিয়ারি শুভেন্দুর ]

আগামী ২ দিনে ভোলবদলাতে পারে আবহাওয়া। কারণ, রাজ্যে প্রবেশ করতে চলেছে বর্ষা। আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর, মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই রাজ্যে বর্ষার প্রবেশের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে, দক্ষিণবঙ্গবাসীদের জন্য আপাতত কোনও স্বস্তির খবর নেই। কারণ, মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে আগামী ২ দিনের মধ্যে সিকিম এবং উত্তরবঙ্গে ঢুকছে বর্ষা। উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনার কথাও জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। সূত্রের খবর, বিহার থেকে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে অক্ষরেখা অবস্থান। উত্তর বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ সৃষ্টির হওয়ার সম্ভাবনা দেখছে আবহাওয়া দপ্তর। যার ফলে কয়েকটি জেলায় বিক্ষিপ্তভাবে বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘ক্ষমতালোভীরা চলে গেলে দলে শুদ্ধিকরণ হবে’, নদিয়ায় কড়া বার্তা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ]

উত্তরের জেলাগুলিতে ভারী বর্ষণের ফলে গরম কিছুটা কমলেও, তাপমাত্রার পারদ নামার সম্ভাবনা নেই দক্ষিণবঙ্গে। কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে এখনই সেভাবে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা দেখছে না আবহাওয়া দপ্তর। অতএব, গরমের হাত থেকে রেহাই পাচ্ছেন না কলকাতাবাসী। গরম বাড়ার সঙ্গে বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ আরও বাড়বে। তাই ভ্যাপসা গরমের পাশাপাশি আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তিতে শহরের মানুষের ভোগান্তি যে আরও বাড়বে, তা বলাই বাহুল্য। দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি হলেও বাড়বে আরও গরম।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং