৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

পলাশ পাত্র, তেহট্ট: লোকসভা নির্বাচনের একেবারে প্রাথমিক পর্যায় থেকে দলবদলের হিড়িক লেগেছে৷ তৃণমূল ছেড়ে বহু নেতাই নাম লিখিয়েছেন গেরুয়া শিবিরে৷ বীজপুরের কর্মিসভায় গিয়ে দলত্যাগীদের কড়া ভাষায় আক্রমণ করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ দলনেত্রীর দেখানো পথেই হাঁটলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়৷ যাঁরা ক্ষমতালোভী, তাঁদের নিয়ে দল চিন্তিত নয় বলেই সাফ জানিয়ে দিলেন নদিয়া জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক৷ বরং বললেন, এই দলত্যাগ ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে শুদ্ধিকরণই যে একমাত্র পন্থা, বুথস্তরের দলীয় বৈঠকে সেকথাই বুঝিয়ে দিলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়৷

[ আরও পড়ুন: কোচবিহারে গেরুয়া সন্ত্রাসের অভিযোগে থানায় ধরনা তৃণমূল বিধায়কের]

লোকসভা নির্বাচনে  এরাজ্য থেকে ১৮টি আসন দখল করে নিয়েছে বিজেপি৷ আশানুরূপ ফল হয়নি তৃণমূলের৷ ফলাফল চিন্তা বাড়াচ্ছে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের৷ তাই বুথস্তরে সংগঠনে নজর দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন স্বয়ং দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তাঁরই নির্দেশে শনিবার নদিয়ায় কর্মিসভার আয়োজন করা হয়৷ তাতেই উপস্থিত ছিলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়৷ রুদ্ধদ্বার বৈঠকে মূলত কীভাবে বুথস্তরে সংগঠনকে আরও মজবুত করা যায় তা নিয়ে আলোচনা করেন তিনি৷ দলীয় বৈঠকের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে তিনি বলেন, ‘‘যারা লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী দিতে পারে না, অপেক্ষা করে কবে, কখন তৃণমূল কংগ্রেস থেকে ছিটকে যাবে তাঁকে প্রার্থী করবে৷ তাঁরা এখনও অপেক্ষা করছে কে,কখন তৃণমূল ছেড়ে বেরোবে৷ আমি আবার বলছি ভারতীয় জনতা পার্টি হচ্ছে ভারতীয় জঞ্জাল পার্টি৷’’

[ আরও পড়ুন: অক্সিজেনের অভাবে রোগী মৃত্যুর অভিযোগ, ধুন্ধুমার মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজে]

২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনই এখন লক্ষ্য ঘাসফুল শিবিরের৷ তার আগে এদিনের বৈঠকে কর্মীদের কোমর বেঁধে তৈরি হওয়ার কথা বলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়৷ অন্তর্দ্বন্দ্ব না করে নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়ার মাধ্যমে দলের জন্য কাজ করার বার্তাও দেন তিনি৷ এছাড়াও যেকোনও মুহূর্তে দলের স্বার্থে তাঁকে মেল অথবা চিঠি লিখে সমস্যা নিয়ে আলোচনার কথাও বলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এদিনের বৈঠকে জেলার শীর্ষ নেতৃত্ব-সহ নেতাকর্মীরাও উপস্থিত ছিলেন৷ তবে শারীরিক অসুস্থতার কারণে এই বৈঠকে থাকতে পারেননি কৃষ্ণনগরের সাংসদ মহুয়া মৈত্র৷

দেখুন ভিডিও:

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং