১২ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ২৬ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

এগরা মেলায় দিলীপ ঘোষের সঙ্গে মঞ্চে, বিধায়ককে শোকজ তৃণমূলের

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 4, 2020 12:05 pm|    Updated: January 4, 2020 12:42 pm

TMC MLA Samaresh Das faces heat after sharing stage with Dilip Ghosh

রঞ্জন মহাপাত্র, কাঁথি: বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সঙ্গে একই অনুষ্ঠান মঞ্চে থাকার অভিযোগে এগরার বিধায়ক সমরেশ দাসকে শোকজ করল পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সির নির্দেশে তাঁকে শোকজ করা হয়। বিধায়কের পাশাপাশি এগরা পুরসভার পুরপ্রধান শঙ্কর বেরা ও কাউন্সিলর হরিপদ বেরাকেও শোকজ করা হয়। একইসঙ্গে ওই মঞ্চে থাকার অভিযোগে এগরা ১ নম্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সিদ্ধেশ্বর বেরাকে শোকজের পাশাপাশি পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

শুক্রবার পূর্ব মেদিনীপুরের এগরা মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়। উদ্বোধনী মঞ্চে বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও ওই মঞ্চে ছিলেন তৃণমূল বিধায়ক সমরেশ দাস, এগরা পৌরসভার পুরপ্রধান শংকর বেরা-সহ তৃণমূলের কাউন্সিলর ও ব্লক নেতারা। তৃণমূলের বিধায়ক ও পুরপ্রধানকে পাশে বসিয়ে রেখে বক্তব্য রাখেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। বিষয়টি নজরে আসে তৃণমূলের রাজ্য নেতৃত্বের। নজরে আসামাত্রই রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি জেলা সভাপতি শিশির অধিকারীকে নির্দেশ দেন এগরার তৃণমূল বিধায়ক-সহ মঞ্চে থাকা দলীয় পদাধিকারীদের শোকজ করার। রাজ্য সভাপতির নির্দেশ পেয়ে এদিন জেলা সভাপতি শোকজ লেটার পাঠান বিধায়ক-সহ পুরপ্রধান ও কাউন্সিলরকে। পাশাপাশি ব্লক সভাপতিকে শোকজ লেটার পাঠানো হয়। সভাপতির পদ থেকেও সরিয়ে দেওয়া হয় তাঁকে।

[আরও পড়ুন: পরপুরুষের সঙ্গে যৌনতায় মত্ত কনে, হবু বরের কারসাজিতে বিয়ের আসরে ফাঁস কীর্তি]

পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা কাঁথির সাংসদ শিশির অধিকারী জানান, বিষয়টি রাজ্য কমিটি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নিয়েছে। রাজ্য সভাপতির নির্দেশক্রমে ইতিমধ্যেই শোকজ লেটার পাঠানো হয়েছে এগরার বিধায়ক-সহ ওই পুরসভার পুরপ্রধান, কাউন্সিলরকেও। পাশাপাশি এগরা ১ নম্বর ব্লক তৃণমূল সভাপতিকে শোকজ এবং সভাপতি পদ থেকে সরিয়ে দিয়ে নতুন সভাপতি নিযুক্ত করা হয়েছে।তবে এ বিষয়ে ফোনে যোগাযোগ করা হলেও কোনো বিবৃতি পাওয়া যায়নি এগরার বিধায়কের কাছ থেকে।

এগরা মেলা খুবই ঐতিহ্যশালী মেলা।প্রাকৃতিক দুর্যোগকে উপেক্ষা করে এই মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়। এনামুলের বিধায়ক ও পুরপ্রধানকে পাশে বসিয়ে নিয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “মেলা হল মহামানবের মিলন ক্ষেত্র। এখানে কোন ভেদাভেদ নেই। এখানে একই সারিতে বিভিন্ন দলের সাংসদ, বিধায়ক রয়েছেন। তাই আমার খুবই ভাল লাগছে। এটা ভারতবর্ষের পরম্পরা। কুম্ভ মেলা এবং গঙ্গাসাগর মেলাতেও প্রচুর ভিড় হয়। মেলা আমাদের সংস্কৃতিকে মিলিয়ে দিয়েছে। এটা ভারতের ঐতিহ্য। মেলার প্রতি আমাদের যে টান তার মধ্যে আমরা একে অপরে মিলিত হয়েছি। আগামী দিনে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে মেলার গুরুত্ব বোঝাতে হবে।” এগরা মেলা কমিটির সম্পাদক মৃন্ময় মিশ্র অবশ্য রাজনৈতিক বিষয়ে মুখ খুলতে নারাজ। তিনি বলেন, “৩৪ বছরে পদার্পণ করল এগরা মেলা। ১০ দিন ধরে চলবে এই মেলা। রয়েছে কয়েকশো স্টল। মেলা উপলক্ষে রয়েছে নানা সামাজিক অনুষ্ঠান। তবে সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে এলাকার মানুষের পাশে দাঁড়াতে এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে