BREAKING NEWS

১০ আষাঢ়  ১৪২৮  শুক্রবার ২৫ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

তৃণমূলেই রয়েছেন নাকি যোগ দিয়েছেন পদ্মশিবিরে? অবস্থান স্পষ্ট করলেন দিব্যেন্দু অধিকারী

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: May 30, 2021 4:48 pm|    Updated: May 30, 2021 5:38 pm

TMC MP Dibyendu Adikari speaks over his political stand | Sangbad Pratidin

রঞ্জন মহাপাত্র, কাঁথি: গত ছ’মাসে অধিকারী পরিবারের সঙ্গে তৃণমূলের (TMC) সম্পর্কের রসায়ন একেবারেই বদলে গিয়েছে। একটা সময়ে যাঁরা ‘দিদি’র বিশ্বস্ত সৈনিক ছিলেন। আজ তাঁরাই বিরোধী আসনে। তবে এখনও খাতায় কলমে তৃণমূলেই রয়েছেন অধিকারী পরিবারের এক সদস্য। তিনি সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী। তবে দল পরিবারের সদস্যদের অপমান করলে তা মানবেন না, সাফ জানালেন সাংসদ।

দল ছাড়ার পর থেকেই লাগাতার শুভেন্দু অধিকারীকে (Suvendu Adhikari) আক্রমণ করেছেন শাসকদলের নেতার। ‘মীরজাফর’ তকমা দেওয়া হয়েছে তাঁকে। পরোক্ষভাবে আক্রমণ করা হয়েছে তাঁর পরিবারের সদস্যদেরও। একের পর দায়িত্ব কমিয়ে দল বুঝিয়ে দিয়েছে, অধিকারী পরিবারের কাউকেই আর ভরসা করছেন না তাঁরা। তারপর ভোটপর্ব মিটেছে। বিপুল আসনে জয় পেয়েছে তৃণমূল। এই পরিস্থিতিতে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে দিব্যেন্দু অধিকারীর (Dibyendu Adhikari) রাজনৈতিক অবস্থান নিয়ে। কারণ, হিসেব মতো তিনি এখনও তৃণমূল সাংসদ হলেও কেন্দ্রের নিরাপত্তা পাচ্ছেন। এদিকে রাজ্য তাঁর নিরাপত্তা প্রত্যাহার করেছে। এবিষয়ে কথা বলা হলে দিব্যেন্দু অধিকারী জানালেন, তিনি এখনও তৃণমূলেই রয়েছেন। বিজেপিতে যাওয়ার কথা ভাবেনওনি।

[আরও পড়ুন: করোনা কালে নয়া আতঙ্ক, আলিপুরদুয়ারে জারি আফ্রিকান সোয়াইন ফিভারের সতর্কতা]

তবে নিরাপত্তা প্রত্যাহার নিয়ে যে রাজ্যের প্রতি বেশ ক্ষুব্ধ তৃণমূল সাংসদ, ইঙ্গিতে তা বুঝিয়েছেন তিনি। প্রশ্ন তুলেছেন “রাজ্য কেন নিরাপত্তা তুলেছে?” পাশাপাশি কেন্দ্র কেন নিরাপত্তা দিয়েছে, তা জানা নেই বলেও জানিয়েছেন তিনি। তবে এদিনও তিনি স্পষ্টভাষায় বলেছেন, পরিবারের কোনও সদস্যদের অপমান মানেই তাঁকে অপমান করা। অর্থাৎ তৃণমূলে থাকলেও দলের প্রতি যে তিনি যথেষ্ট বিরূপ, পরিবারকে ক্রমাগত আক্রমণ যে দিব্যেন্দু মোটেও সহজভাবে নিচ্ছেন না তা বলাই বাহুল্য।

[আরও পড়ুন:বনকর্মীদের তৎপরতাতেও হল না শেষরক্ষা, সুন্দরবনে মৃত্যু রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement