১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভোট গণনার দিন উদ্ধার ব্যবসায়ীর ক্ষতবিক্ষত দেহ, চাঞ্চল্য ছড়াল বালুরঘাটে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 17, 2018 7:33 pm|    Updated: May 17, 2018 7:33 pm

An Images

রাজা দাস, দক্ষিণ দিনাজপুর: পঞ্চায়েত ভোটের গণনা নিয়ে চাপা উত্তেজনা তো ছিলই। শুক্রবার সকালে আবার এক ব্যবসায়ীর ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার হল দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটে। শহর লাগোয়া রঘুনাথপুর নামাডাঙ্গার জঙ্গলে পড়েছিল মৃতদেহটি।  প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, ওই ব্যক্তিকে খুন করা হয়েছে। রাজনৈতিক কারণে কি খুন হলেন ওই ব্যবসায়ী? নাকি অন্য কারণে এই ঘটনা ঘটল?  তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। মৃতদেহটি পাঠানো হয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, মৃতদেহের শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন ছিল। ঘটনাস্থল থেকে একটি সাইকেলও পাওয়া গিয়েছে।

[নিয়্ন্ত্রণ হারিয়ে চা বাগানের শ্রমিক আবাসনে ঢুকে পড়ল বাস, মৃত এক]

মৃত ব্যবসায়ীর নাম স্বাধীন কুণ্ডু। বালুরঘাট শহরের বিশ্বাসপাড়া এলাকায় থাকতেন মধ্য পঞ্চাশের ওই ব্যক্তি। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, শুক্রবার সকালে শহর লাগোয়া রঘুনাথপুর নামাডাঙা ফরেস্টে স্বাধীনবাবুর মৃতদেহটি পড়ে থাকতে দেখেন তাঁরা। এলাকাটি স্থানীয় ডাঙা গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত। ঘটনাচক্রে শুক্রবারই আবার ছিল পঞ্চায়েত ভোটের গণনা। ঘটনাটি জানাজানি হতেই এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বালুরঘাট থানার পুলিশ। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, স্বাধীন কুণ্ডুর মৃতদেহে একাধিক আঘাতের চিহ্ন ছিল। মৃতদেহের পাশে ছিল একটি সাইকেলও। গ্রামবাসীরা দাবি, অন্য কোথাও খুন করে মৃতদেহটি রঘুনাথপুর নামডাঙার জঙ্গলে ফেলে দিয়ে গিয়েছে আততায়ীরা। ওই ব্যবসায়ীকে যে খুন করা হয়েছে, প্রাথমিক তদন্তে তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই পুলিশের। কিন্তু, কেন খুন হতে হল স্বাধীন কুণ্ডুকে? রাজনৈতিক বিবাদ নাকি ব্যক্তিগত শক্রতা? তদন্তে বালুরঘাট থানার পুলিশ।

ছবি: রতন দে

[সাত দশকের অপেক্ষার অবসান, প্রথম জনপ্রতিনিধি পাবে সাবেক ছিটমহল]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement