১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  সোমবার ৫ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কুড়মিদের আন্দোলন প্রত্যাহার, ৬ দিন পর আদ্রা ডিভিশনে গড়াল ট্রেনের চাকা

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 25, 2022 10:23 am|    Updated: September 25, 2022 10:23 am

Train service normal after withdraw of Kurmi's agitation । Sangbad Pratidin

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: কুড়মিদের আন্দোলন প্রত্যাহার। ছ’দিন পর দক্ষিণ পূর্ব রেলওয়ের আদ্রা ডিভিশনে গড়াল ট্রেনের চাকা। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে জাতীয় সড়কে যান চলাচল।

কুড়মি জনজাতিকে আদিবাসী তালিকাভুক্ত করার দাবিতে গত মঙ্গলবার থেকে আন্দোলন শুরু হয় পুরুলিয়ায়। দাবি আদায়ের জন্য রাস্তায় নামেন কুড়মি জনজাতির প্রতিনিধিরা। রেল অবরোধ করেন তাঁরা। দক্ষিণ-পূর্ব রেলের আদ্রা ডিভিশনের রেললাইনে শুয়ে পড়ে রেল চলাচল সম্পূর্ণ আটকে দেন আন্দোলনকারীরা। ফলে বাতিল হয় বহু ট্রেন। শুধু রেললাইন নয়, ৫ নম্বর জাতীয় সড়কও অবরোধ করেন কুড়মি সমাজের প্রতিনিধিরা। রেল পরিষেবার পাশাপাশি সড়কপথও বন্ধ থাকায় একের পর এক বাস, ট্রাক, লরি, গাড়ি দাঁড়িয়ে পড়ে।

[আরও পড়ুন: প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি: পরপর ৫ চাকরিপ্রার্থীর রহস্যমৃত্যু, উঠছে প্রশ্ন]

শনিবার বেলা এগারোটা নাগাদ অবরোধস্থলে যান আদিবাসী কুড়মি সমাজের মূল মানতা অজিতপ্রসাদ মাহাতো। পুরুলিয়া জেলাশাসকের দপ্তরে আন্দোনকারীদের দাবিদাওয়া নিয়ে আলোচনায় বসেন। নবান্ন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দেন আধিকারিকরা। বৈঠকের পর অজিতপ্রসাদ মাহাতো জানান, আপাতত পুজোর মুখে আন্দোলন প্রত্যাহার করা হচ্ছে। তবে সেই সিদ্ধান্ত নিয়ে আন্দোলনকারীদের মধ্যে দ্বিমত তৈরি হয়।

শনিবার সন্ধেয় পুরুলিয়া-আদ্রা শাখায় কুস্তাউর স্টেশন থেকে রেল অবরোধ তুলে নিলেও অন্তর্দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়ে ‘ছোটনাগপুর কুডমি, কুড়মি, মাহাতো সমাজে’র প্রতিনিধিরা। রাতভর আন্দোলন চালিয়ে যান তাঁরা। অভিযোগ, তাঁদের কর্মীদের অবরোধস্থল থেকেই তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাদের অনেক নেতা-কর্মী এখনও নিখোঁজ বলেই দাবি।

রবিবার সকাল ৭টা ১৫মিনিট নাগাদ কুড়মিদের ওই সংগঠনটি কুস্তাউর স্টেশন থেকে অবরোধ তুলে নেয়। তার প্রায় দু’ঘণ্টা পর ৯টা নাগাদ দক্ষিণ-পূর্ব রেলওয়ের আদ্রা ডিভিশনের আদ্রা- পুরুলিয়া শাখায় ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়। পুরুলিয়া স্টেশন থেকে পণ্যবাহী ট্রেন কয়লা নিয়ে আনারা স্টেশন হয়ে মেজিয়া তাপবিদ্যুৎ প্রকল্পের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিয়েছে। পণ্যবাহী ট্রেনের এই ওয়াগেনের নাম BOBRN। রেল সূত্রে খবর, যে ট্রেনগুলিকে ঘুরপথে গন্তব্যে পৌঁছতে হত, সেগুলি এখন সরাসরি গন্তব্যে পৌঁছবে। তবে যে ট্রেনগুলি বাতিল করা হয়েছিল, সেগুলি ফের চালানো হবে কিনা, তা জানা যায়নি।

[আরও পড়ুন: ইচ্ছাকৃতভাবে টেটে পাশ করানো হয়নি! মামলা করে আত্মঘাতী চাকরিপ্রার্থী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে