BREAKING NEWS

১৩  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

লাইনের ফিসপ্লেট সরে যাওয়ায় বিপত্তি, দীর্ঘক্ষণ ব্যাহত ব্যান্ডেল-কাটোয়া শাখার ট্রেন চলাচল

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: March 8, 2019 3:06 pm|    Updated: March 8, 2019 6:01 pm

Train stopped at bandle-katwa line

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অফিস টাইমে ফের বিঘ্নিত রেল পরিষেবা। যার জেরে নাকাল হতে হল নিত্যযাত্রীদের। ঘটনাটি ঘটেছে ব্যান্ডেল–কাটোয়া শাখার বাঁশবেড়িয়া স্টেশনের কাছে। শুক্রবার সকালে রেললাইনে ফাঁক নজর পড়ে স্থানীয়দের। খবর পেয়ে দ্রুত মেরামতির কাজ শুরু করে রেল কর্মীরা। এই ঘটনার জেরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে যাত্রীদের মধ্যে। জানা গিয়েছে, ফিসপ্লেট সরে যাওয়ার ফলেই লাইনের মাঝে ফাঁক তৈরি হয়েছিল। তবে স্বাভাবিক ট্রেন চলাচল।   

[পাক জঙ্গিদের দেহ দেখানোর দাবি নদিয়ার শহিদ পরিবারের]

জানা গিয়েছে, শুক্রবার সকালে হঠাৎই ব্যান্ডেল-কাটোয়া শাখার বাঁশবেড়িয়া স্টেশনের আগে সাহাগঞ্জ ইশ্বরবাহা এলাকায় রেল লাইনে বেশ কিছুটা ফাঁক দেখতে পান স্থানীয়রা। এরপরই তারা রেলের গ্যাংম্যানকে খবর দেন। গ্যাংম্যানের তরফে খবর পাঠানো হয় ব্যান্ডেল স্টেশনের জিআরপিকে। ততক্ষণে ব্যান্ডেল স্টেশন ছেড়ে কাটোয়ার দিকে রওনা দিয়েছে ৬টা ৩০-এর ব্যান্ডেল কাটোয়া লোকাল। তড়িঘড়ি ট্রেনের চালকের সঙ্গে যোগাযোগ করে মাঝপথে দাঁড় করিয়ে দেওয়া হয় ট্রেন। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ট্রেন থেকে নেমে পড়েন অনেকেই। সূত্রের খবর, সাময়িক সময়ের জন্য ওই লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। জানা গিয়েছে, ওই সময়েই ওই লাইন থেকে জঙ্গীপুর প্যাসেঞ্জার যাওয়ার কথা ছিল। সেই ট্রেনটিকে অন্য লাইন দিয়ে পাস করানো হয়। এদিন সকাল থেকে দীর্ঘক্ষণ একটি লাইনে যাতায়াত করে ট্রেন। প্রায় আড়াই ঘণ্টা পর মেরামতির কাজ শেষ হলে স্বাভাবিক হয় ট্রেন চলাচল। রেলের তরফে জানান হয়েছে, লাইনের ফিসপ্লেট সরে যাওয়ার ফলেই লাইনের মাঝে ফাঁক সৃষ্টি হয়েছিল। সেই সময় বিষয়টি নজরে না পড়লে বড়সড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারত। 

[বুনো শূকরের আক্রমণে সারেঙ্গায় মৃত যুবক, আহত ১ ]

এই প্রথম নয়, এর আগেও একাধিকবার রেলের পরিষেবা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। বিগত কিছুদিনে বেশ কয়েকবার রেল অবরোধের মতো ঘটনাও ঘটেছে। কখনও নির্দিষ্ট একটি স্টেশনে ট্রেনের না দাঁড়ানো নিয়ে, কখনও আবার না জানিয়েই লোকাল ট্রেনে মহিলা কামরা বৃদ্ধি নিয়ে, আবার কখনও স্টেশনে পাবলিক অ্যাড্রেস সিস্টেম ঠিকমতো ঘোষণা হওয়ায় ঘটে যাওয়া দুর্ঘটনার কারণে। সবমিলিয়ে ঠিকমতো পরিষেবা না দেওয়ায় রীতিমতো রেল কর্তৃপক্ষের উপর তিতিবিরক্ত সাধারণ মানুষ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে