Advertisement
Advertisement

Breaking News

ভাটপাড়ায় জয়ী তৃণমূল

কোর্টে লড়াই করলেও আস্থা ভোটে গরহাজির বিজেপি, ভাটপাড়ায় জয়ী তৃণমূল

১৯-০ স্কোরে জিতল তৃণমূল।

Trinamool Congress wrests Bhatpara municipality from BJP
Published by: Soumya Mukherjee
  • Posted:January 7, 2020 2:51 pm
  • Updated:January 7, 2020 3:35 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ১৯-০ স্কোরে ভাটপাড়া পুরসভা ফের দখল করল তৃণমূল কংগ্রেস। কলকাতা হাই কোর্টের নির্দেশ মঙ্গলবার ফের আস্থা ভোট হয় ভাটপাড়া পুরসভার। আর ভোটগ্রহণ শুরু হতেই দেখা যায় বিজেপি কাউন্সিলাররা কেউ আসেননি। কিন্তু, উপস্থিত রয়েছেন তৃণমূলের সমস্ত কাউন্সিলার। ফলে আস্থা ভোটে জয়ী হয়ে ভাটপাড়া পুরসভায় তাদের একাধিপত্য বজায় রাখল তৃণমূল কংগ্রেস। আস্থা ভোটের ফলাফল প্রকাশ্যে আসতেই পুরসভার বাইরে সবুজ আবির মেখে উল্লাসে মেতে উঠে দেখা যায় তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের।

এর আগে নতুন বছরের দ্বিতীয় দিনেই আস্থা ভোট হয়েছিল ভাটপাড়া পুরসভায়। ওই দিনও ১৯-০ স্কোরে বিজেপির হাত থেকে উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া পুরসভা (Bhatpara municipality) পুনরুদ্ধার করে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল। ১৯-০ ভোটে অর্জুন বাহিনীকে ধরাশায়ী করে দেয়  ঘাসফুল শিবির। চেয়ারম্যানের পদও হাতছাড়া হয় অর্জুন সিংয়ের ভাইপো সৌরভ সিংয়ের। তবে বেআইনিভাবে আস্থা ভোট করা হয়েছে, এই অভিযোগ তুলে এই ভোটাভুটিতে অংশ নেয়নি বিজেপি। তার বদলে ২ জানুয়ারি বিকেলেই কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয় গেরুয়া শিবির।বিচারপতি অরিন্দম সিনহার বেঞ্চ ওই ভোটাভুটি খারিজ করে দেয়। এই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে গত শুক্রবার হাই কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে যায় তৃণমূল। মামলাটির দ্রুত শুনানি করার আরজি জানায়।

Advertisement

[আরও পড়ুন: হায়দরাবাদকাণ্ডের ছায়া দক্ষিণ দিনাজপুরে, কিশোরীকে গণধর্ষণের পর পুড়িয়ে খুনের অভিযোগ]

 

Advertisement

কিন্তু, তাঁদের দ্রুত শুনানির আরজি খারিজ করে দেন বিচারপতি দীপঙ্কর দত্ত। বৃহস্পতিবারের নির্দেশনামার কপি না থাকায় মামলার শুনানি সম্ভব নয় বলেও জানিয়ে দেন তিনি। ‘শুনানি সোমবার হলে স্বর্গ ভেঙে পড়বে না’ বলেও কটাক্ষ করেন।

[আরও পড়ুন: দিলীপের সভার জন্য আটকাল অ্যাম্বুল্যান্স, ঘুরপথে যাওয়ার নির্দেশ বিজেপি নেতার]

 

সোমবার শুনানির সময় নতুন করে আস্থা ভোট করার ক্ষেত্রে কোনও সমস্যা নেই বলে জানিয়ে দেন তিনি। তাঁর নির্দেশ মতো মঙ্গলবার বেলা একটায় ভোটাভুটির সময় ধার্য করা হয়। বিচারপতি সাফ জানিয়ে দেন, যে দল সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে, তারাই পুরসভার ক্ষমতা দখল করবে। আস্থা ভোটকে কেন্দ্র করে যাতে কোনওরকম অশান্তির পরিবেশ তৈরি না হয় সেই কারণে যথাযথ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করার নির্দেশও দেন। 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ