২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়, আসানসোল: লোকসভা নির্বাচনে জোড়াফুল চিহ্নে ভোট চেয়ে দেওয়াল লিখেছেন তৃণমূল কর্মীরা। আর সেই দেওয়াল লিখনে জ্বলজ্বল করছে স্বামী বিবেকানন্দের ছবি! বিতর্ক তুঙ্গে আসানসোলের জামুড়িয়ায়। ভোটপ্রচারে মণীষীদের ছবি ব্যবহারের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বিরোধীরা।

[ আরও পড়ুন: উর্দি পরেই রাম নবমীতে লাঠিখেলা, বিতর্কে আসানসোলের পুলিশ আধিকারিক]

এবারের লোকসভা ভোটে আসানসোল কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী মুনমুন সেন। বিরোধীদের অভিযোগ, ভোটের প্রচারে সুচিত্রা সেনের ছবি ব্যবহার করছেন তৃণমূল প্রার্থী। এমনকী, বিভিন্ন জনসভায় সরাসরি মায়ের নাম করে ভোটও চাইছেন তিনি। আর এবার বিতর্কের কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেসের দেওয়াল লিখন। আসানসোল পুরসভার সাত নম্বর ওয়ার্ডে জামুড়িয়ার ইকরা আমবাগান এলাকায় দলের প্রার্থীর সমর্থনে দেওয়াল লিখেছেন তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা। দেওয়ালের একদিকে সবুজসাথী, স্বাস্থ্যসাথী-সহ দশটি সরকারি প্রকল্পের তালিকা, অন্যদিকে জোড়া ফুল চিহ্ন এঁকে লেখা ‘এই চিহ্নে ভোট দিন’। আর দেওয়ালের মাঝে স্বামী বিবেকানন্দের ছবি।

ভোটের প্রচারে মণীষীদের ছবি ব্যবহার করা নিয়ে তীব্র আপত্তি তুলেছে বিরোধীরা। বিজেপির পশ্চিম বর্ধমান জেলা সভাপতি লক্ষ্মণ ঘড়ুইয়ের বক্তব্য, জনমানসে তৃণমূল কংগ্রেসের ভাবমূর্তি খুবই খারাপ। দলের কোনও স্বচ্ছ ভাবমূর্তির নেতা নেই, তাই ভোটপ্রচারে মণীষীদের ছবিও ব্যবহার করা হচ্ছে। বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে অপমান করছে তৃণমূল কংগ্রেস। স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর রাখী কর্মকারের সাফাই, পেশাদার শিল্পীদের দিয়ে দেওয়া লিখিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের ব্লক নেতৃত্ব। ক্যাটালগে হয়তো যুবশ্রী প্রকল্পে স্বামীজীর ছবি দেওয়া ছিল। বুঝতে না পেরে দেওয়াল লিখনে সেই ছবি এঁকে ফেলেছেন পেশাদার শিল্পীরা। যদি নিয়মবিরুদ্ধ বা আদর্শ নির্বাচনী বিধি লঙ্ঘিত হয়, তাহলে অবিলম্বে ওই দেওয়া লিখনটি মুছে ফেলা হবে।

[ আরও পড়ুন: ভোট আসে, ভোট যায়, কাঁটাতারেই আটকে সুমি-নাসিফাদের জীবন]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং