১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ৩ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মর্মান্তিক! বাড়ির রান্না করা মাংসেই বিষক্রিয়া, বর্ধমানে মৃত্যু ২ শিশুর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: February 10, 2022 5:25 pm|    Updated: February 10, 2022 5:28 pm

Two children died over food poisoning into the cooked meat in Burdwan | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

অর্ক দে, বর্ধমান: বাড়িতে রান্না করা মাংস (Meat) খেয়ে বড়সড় বিপত্তি। বর্ধমানের রথতলা এলাকায় বিষক্রিয়ার জেরে সকলেই ভরতি হাসপাতালে। ২ দিন ধরে চিকিৎসার পরও দুই শিশুকে রক্ষা করা গেল না। বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ (Burdwan Medical College Hopsital) হাসপাতালে বৃহস্পতিবার সকালে মৃত্যু হল তাদের। ঘটনায় শোকে মুহ্যমান গোটা পরিবার।

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে বর্ধমানের (Burdwan) রথতলা এলাকার ঘোষ পরিবারে মাংস রান্না হয়েছিল। সবাই মিলে তা আনন্দ করে খেয়েছেন। কিন্তু তারপরই পরিবারে নেমে এল বিপদ। সকলেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। একসঙ্গে ৬ জন ভরতি হন বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। সকলের শরীরেই বিষক্রিয়া (Food Poisoning)হয়েছে বলে প্রাথমিক স্বাস্থ্যপরীক্ষার পর জানান চিকিৎসকরা। এরপর তাঁদের চিকিৎসা শুরু হয়। কিন্তু তারপরও পরিবারের দুই খুদে সদস্যকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। বৃহস্পতিবার সকালে তাদের মৃত্যু হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় এখনও হাসপাতালে ভরতি ৪ জন।

[আরও পড়ুন: প্রেমিকার নগ্ন ছবি বন্ধুবান্ধবদের শেয়ার! প্রতিবাদ করায় অ্যাসিড হামলার হুমকি যুবকের]

হাসপাতাল সূত্রে খবর, মৃতদের নাম শুভঙ্কর ঘোষ ও রাহুল ঘোষ। এরা দুই ভাই। শুভঙ্করের বয়স ১২ বছর ও রাহুল ৯ বছরের ছাত্র। হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে তাদের বাবা, দিদি, পিসি ও ঠাকুমার। কিন্তু কীভাবে বাড়ির রান্না করা খাবার থেকে বিষক্রিয়া হল? বিষয়টি নিয়ে এখনও নিশ্চিত নন পরিবারের কেউই। তবে শুভঙ্কর ও রাহুলের দিদার আভাদেবী জানাচ্ছেন, বাড়িতে কয়েকদিন আগে ইঁদুর মারার বিষ দেওয়া হয়েছিল। সেখান থেকেই কোনওভাবে বিষের প্রভাব রান্নাঘরে গিয়ে পড়েছে কি না, তা ভাবাচ্ছে তাঁদের। তবে স্রেফ মাংস খেয়ে বাড়ির দুই খুদে সদস্যের মৃত্যুতে শোকাহত গোটা পরিবার।

[আরও পড়ুন: WB Civic Polls 2022: অব্যাহত জয়ের ধারা, এবার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দিনহাটা পুরসভা দখল তৃণমূলের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে