BREAKING NEWS

১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

লিঙ্গ নির্ধারণ রোধে ইউএসজি মেশিনের ট্র্যাকারের দাবি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 19, 2016 9:26 am|    Updated: September 19, 2016 1:09 pm

Ultrasound Machine To Have Online Tracking System To Prevent Sex Determination

স্টাফ রিপোর্টার: আইন আছে৷ আইন ভাঙলে কড়া শাস্তির বিধানও আছে৷ তা সত্ত্বেও বেসরকারি একাধিক নার্সিংহোম থেকে ডায়াগনস্টিক সেন্টারে রমরমিয়ে লিঙ্গ নির্ধারণ হচ্ছে৷ সেক্ষেত্রে ব্যবহার করা হচ্ছে ‘সিক্রেট কোড’৷ এই চালাকি ঠেকাতে প্রযুক্তির সাহায্য নিয়েছে বেশ কয়েকটি রাজ্য৷ এই পথেই এবার হাঁটতে চাইছে বাংলা! লিঙ্গ নির্ধারণ ঠেকাতে দাবি উঠছে ইউএসজি মেশিনে ‘ট্র্যাকার’ বসানোর৷ এ প্রসঙ্গে রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা (শিক্ষা) ডাঃ সুশান্ত বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য, “এই নিয়ম যদি বাধ্যতামূলক হয় তাহলে তো ভালই৷ এখনও পর্যন্ত বাধ্যতামূলক যা যা আছে, তা সবই রয়েছে৷”
সারা দেশেই লিঙ্গ নির্ধারণ ঠেকাতে কড়া আইন (পিসিপিএনডিটি অ্যাক্ট) রয়েছে৷ রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের কড়া নজরদারিও রয়েছে৷ লিঙ্গ নির্ধারণের অভিযোগ থাকায় রাজ্য মেডিক্যাল কাউন্সিলের নির্দেশে বছর দুই আগে ১৫টির বেশি ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে বন্ধও করে দেওয়া হয়েছিল৷ লিঙ্গ বৈষম্য রুখতে কয়েকটি রাজ্যে ‘অ্যাকটিভ ট্র্যাকার’-কে হাতিয়ার করা হয়েছে৷
ট্র্যাকারের মাধ্যমে কি হবে?
কোনও বেসরকারি নার্সিংহোম কিংবা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ইউএসজি মেশিনে লাগানো থাকবে অ্যাকটিভ ট্র্যাকার৷ কারও ছবি ইউএসজি মেশিনে তোলা হলেই তা সরাসরি ট্র্যাকারের মাধ্যমে জেলাশাসকের কাছে চলে যাবে৷ এই ট্র্যাকার লাগানোর জন্য এবার দাবি তুলেছে বিজেপির ‘বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও’ সেল৷ পশ্চিমবঙ্গেও লিঙ্গ নির্ধারণ রুখতে ট্র্যাকার লাগানোর দাবিতে রবিবার রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে ‘বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও’ সেল৷ সেলের রাজ্যের আহ্বায়ক নূপুর ঘোষ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য, রাজ্যপালের কাছে আমরা এই ট্র্যাকার বসানোর দাবি ছাড়াও মেয়েদের স্কুলছুট আটকাতে শিক্ষা দফতর যাতে আরও উদ্যোগী হয় সে বিষয়েও জানিয়েছি৷
রবিবার কলকাতায় ‘বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও’ সেলের পূর্বাঞ্চলীয় জোনের সম্মেলন ছিল৷ সেলের জাতীয় আহ্বায়ক রাজেন্দ্র ফাদকের দাবি, শিক্ষিত সমাজেই লিঙ্গ নির্ধারণের প্রবণতা বেশি৷ ফেডারেশন অফ অবস্ট্রেটিকস অ্যান্ড গায়নোকলজিক্যাল সোসাইটি অফ ইন্ডিয়া-র অন্যতম সদস্য তথা রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক ডাঃ সুভাষ সরকারের বক্তব্য, লিঙ্গ নির্ধারণ আটকাতে রাজ্যে ট্র্যাকারের ব্যবহার হলে তা ভালই হবে৷
অন্য দিকে, ভ্রুণের লিঙ্গ নির্ধারণের বিষয়ে কড়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে ইন্টারেটের সার্চ ইঞ্জিনগুলিও। এবার থেকে লিঙ্গ নির্ধারণ সংক্রান্ত সরকম তথ্য ব্লক করে দেবে গুগল, ইয়াহুরা। কোনও ভাবেই যাতে কেউ সন্তান জন্মের আগে তার লিঙ্গ জানতে না পারেন, তাই এই ব্যবস্থা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে