BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৫ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

প্রায় আড়াই মাস পর খুলল বেলুড় মঠ, জেনে নিন প্রবেশের নিয়মকানুন

Published by: Sayani Sen |    Posted: June 15, 2020 10:35 am|    Updated: June 15, 2020 6:43 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আনলক ওয়ানে ফের স্বাভাবিক ছন্দে ফিরছে গোটা দেশ। খুলেছে একাধিক সরকারি, বেসরকারি অফিস। ভক্তদের জন্য দরজা খুলেছে ধর্মস্থানগুলিরও। করোনা সংক্রমণের আশঙ্কাকে কিছুটা দূরে সরিয়ে সোমবার থেকে স্বাভাবিকের পথে বেলুড় মঠও (Belur Math)। প্রায় আড়াই মাস পর শুরু বেলুড় মঠে ভক্তদের আনাগোনা। 

সোমবার সকালে খোলে বেলুড় মঠের দরজা। আপাতত চারটি মন্দির শুধুমাত্র পরিদর্শন করতে পারবেন পুণ্যার্থীরা। তবে প্রতিক্ষেত্রেই তাঁদের উপযুক্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। প্রত্যেক পুণ্যার্থীকে পরতে হবে মাস্ক। মূল দরজার বাইরে কাটা হয়েছে দাগ। যাতে বেলুড় মঠে ঢোকার আগে থেকেই দূরত্ববিধি মেনে চলতে পারেন দর্শনার্থীরা। শুধুমাত্র উপসর্গহীনদেরই ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে মঠে। তবে ১০ বছরের নিচে এবং ৬৫ বছরের ঊর্ধ্বে কাউকে মঠে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। প্রবেশ পথে থার্মাল চেকিংয়ের বন্দোবস্ত করা হয়েছে। দেওয়া হচ্ছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারও।

Belur-Math

যাতে প্রত্যেকে দূরত্ববিধি মেনে চলেন তাই মঠে প্রবেশের রাস্তায় নির্দিষ্টি দূরত্ব মেনে দাগ কেটে দেওয়া হয়েছে। ওই দাগ অনুযায়ী রাস্তা দিয়েই শ্রীরামকৃষ্ণ মন্দিরে ঢুকতে হবে আগতদের। সেখানেও ঢোকার মুখে দেওয়া হচ্ছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার। তার ব্রহ্মানন্দ, মা সারদা এবং স্বামীজিকে দর্শনের পর বেরিয়ে যেতে হবে পুণ্যার্থীদের। মঠে নিষিদ্ধ ফুল ও মিষ্টি। শুধুমাত্র ফল দেওয়া হবে। মঠের সন্ন্যাসীদের প্রণাম করা যাবে না। দর্শনার্থীরা দেখতে পারবেন না সন্ধ্যারতিও। আগে বহু পুণ্যার্থী বেলুড় মঠে বসে থাকতেন। তবে বর্তমানে কোথাও বসে ধ্যান করা যাবে না। সংক্রমণের সম্ভাবনা এড়াতে গঙ্গাস্নানও করা যাবে না। 

Belur-Math

[আরও পড়ুন: মেলেনি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে জায়গা, গোয়াল ঘরেই বাস গুজরাট ফেরত রাজ্যের ৩ পরিযায়ী শ্রমিকের]

দিনদুয়েক আগে বেলুড় মঠের এক মহারাজের শরীরে মেলে করোনার নমুনা। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন। তারপর মঠ খোলা নিয়ে তৈরি হয়েছিল অনিশ্চয়তা। তবে আশা আশঙ্কার দোলাচল কাটিয়ে সোমবার থেকে ফের খুলল বেলুড় মঠের দরজা। উল্লেখ্য এর আগে দক্ষিণেশ্বর মন্দিরের দরজাও ভক্তদের জন্য খুলে দেওয়া হয়। তবে সেক্ষেত্রেও মানা হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি। পিপিই পরে পুজো সারছেন পুরোহিতরা।  

Belur-Math

[আরও পড়ুন: ধোনি না জানিয়ে রেল ছাড়েন, সুশান্ত বলেছিলেন জানিয়ে যাবেন, নীরবে চলে গেলেন, আক্ষেপ খড়গপুরের]

এদিকে, আজ খুলে গিয়েছে জয়রামবাটীর মাতৃমন্দিরও। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর সোমবার থেকে এই মাতৃমন্দিরের দ্বার খোলা হল দর্শনার্থীদের জন্য। ভক্তদের প্রবেশের অধিকার থাকলেও বেশ কয়েকটি নিয়মনীতি জারি হয়েছে। সব দর্শনার্থীকেই মুখে মাস্ক পরতে হবে। মন্দিরের মূল প্রবেশদ্বার চলছে থার্মাল স্ক্রিনিং।  

Jairambati-temple

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement