১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

উৎকটাসনে যোগ দিবস পালনে পড়ুয়া, নেতারাও

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 21, 2016 9:41 am|    Updated: August 20, 2020 9:41 pm

An Images

গৌতম ব্রহ্ম ও রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: উৎকটাসন৷ টাডাসন৷
সঞ্জয় দত্তের বিচার হয়েছিল টাডা আইনে৷ তা বলে টাডাসন?
আসনের নাম কখনও উৎকট হয়?
যতই অদ্ভূত শোনাক এই দু’টি আসনকে সামনে রেখেই ‘বিশ্ব যোগ দিবস’ পালনের প্রস্তুতি নিল রাজ্য৷ ক্ষুদিরাম অনুশীলন কেন্দ্রে দুপুর একটায় শুরু অনুষ্ঠান৷ সেখানেই কুড়িটি স্কুলের আটশো পড়ুয়াকে আসন শেখানো হবে৷ স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে এমনটাই জানা গিয়েছে৷
গোটা অনুষ্ঠানটির তদারকি করবেন রাজ্য যোগা-ন্যাচারোপ্যাথি কাউন্সিলের সভাপতি তুষার শীল৷ তুষারবাবু জানালেন, উৎকটাসন ও টাডাসন পায়ের পেশির জোর বাড়ানোর জন্য খুব কার্যকর৷ স্কুলপড়ুয়ারা উপকৃত হবে৷ তাছাড়া নাম দু’টি অন্যরকম হওয়ায় মনে রাখতেও সুবিধা হবে৷ তবে বহুল প্রচলিত ভুজঙ্গাসন, পবনমুক্তাসন, শলভাসনও শেখানো হবে৷ সেখানো হবে ঘাড় ও কোমরের হরেক ব্যায়াম৷ উদ্দেশ্য একটাই, শরীর-মনকে সতেজ রাখা৷ স্বাস্থ্য, ক্রীড়া, যুবকল্যাণ ও শিক্ষা দফতরের সহযোগিতায় এই অনুষ্ঠান হলেও কোনও বিভাগীয় মন্ত্রী অবশ্য হাজির থাকবেন না এই অনুষ্ঠানে৷ তবে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ও বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের যোগ-চিকিৎসক ও পড়ুয়ারা থাকবেন৷ এঁরা আরোগ্যলাভের উপায় বাতলে দেবেন৷
উৎকটাসন ও টাডাসনে মজেছেন বিজেপি নেতারাও৷ আজ, সন্ধ্যায় রাজ্য বিজেপির দফতরে শীর্ষ নেতাদের আসন তালিকায় রয়েছে এই দু’টি আসন৷ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) অমলেন্দু চট্টোপাধ্যায়, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সুব্রত চট্টোপাধ্যায়রাই আসনের তদারকি করবেন৷ দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন, “আমি প্রতিদিন ভোরেই যোগচর্চা করি৷ অর্ধকোটিচক্রাসন, ত্রিকোণাসন, বীরভদ্রাসনও রয়েছে তালিকায়৷ রয়েছে সূর্যপ্রণাম৷”
কাকতালীয় হলেও দু’টি অনুষ্ঠানের যোগসূত্র কিন্তু এই দু’টি আসন৷ উৎকটাসন ও টাডাসন৷
গতবার থেকে বিশ্ব যোগ দিবস পালন শুরু হয়েছে৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উদ্যোগে কেন্দ্র এই যোগাসন বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে৷ রাষ্ট্রসংঘে প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছিল৷ গতবার দেড়শোর কিছু বেশি দেশে যোগ দিবস পালিত হয়েছে৷ এবার পালিত হচ্ছে প্রায় ২০৭টি দেশে৷ বিভিন্ন রাজ্যে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা যাচ্ছেন৷ এ রাজ্যে আসছেন কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী রাধামোহন সিং৷ আজ, মঙ্গলবার একটি বেসরকারি সংস্থার উদ্যোগে রানি রাসমণি রোডে যোগ দিবস পালিত হবে৷ সেই অনুষ্ঠানে থাকবেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী ও কৃষিমন্ত্রী৷ থাকছে বিভিন্ন্ স্কুলের. পড়ুয়ারা৷ এবারই প্রথম বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব রীতিমতো হুইপ জারি করেছে, সমস্ত রাজ্য ও জেলা নেতাদের যোগ দিবস পালন করতে হবে৷ জেলাস্তরের পার্টি অফিসেও পালিত হবে যোগদিবস৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement