BREAKING NEWS

১০  আশ্বিন  ১৪২৯  শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘সময়ে হিসাব হবে’, গণবিবাহের আসরে গন্ডগোল নিয়ে রাজ্যকে তোপ VHP’র

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: February 6, 2020 2:57 pm|    Updated: February 6, 2020 3:00 pm

Mamata Banerjee accuses VHP for converting tribals into Hinduism

ঘটনাস্থলের ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চারদিন আগে মালদহের গাজোলের আলমপুরে গণবিবাহের আয়োজন করা হয়েছিল বিশ্ব হিন্দু পরিষদের তরফে। কিন্তু, বিয়ের আসরে আচমকা গন্ডগোল শুরু হয়। বিশ্ব হিন্দু পরিষদ (VHP) আদিবাসীদের ধর্মান্তকরণের চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ জানিয়ে সেখানে হাজির হন ঝাড়খণ্ড দিশম পার্টির কিছু লোকজন। উভয়পক্ষের মধ্যে হওয়া তুমল ঝামেলার ফলে পন্ড হয়ে যায় বিয়ের আয়োজন।

শুধু তাই নয়, এই ঘটনার পরই বিশ্ব হিন্দু পরিষদের ১০ জন নেতার নামে রাজ্যের প্রশাসন মিথ্যে মামলা দায়ের করে বলে অভিযোগ। এরপর মঙ্গলবার সন্ধেয় এই ১০ জনের মধ্যে নাম না থাকা সত্বেও শ্যামল মণ্ডল নামে নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ঝাড়খণ্ড দিশম পার্টির এক নেতা লক্ষ্মীরাম হাঁসদার অভিযোগের ভিত্তিতে তাঁকে গ্রেপ্তার করে। এই ১১ জনের জামিনের জন্য কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। বৃহস্পতিবার তার শুনানি চলছে।

[আরও পড়ুন: সাবধান! পকেটের রুমালেও লুকিয়ে করোনার বিপদ, বলছেন চিকিৎসকরা ]

 

পাশাপাশি এই বিষয়ে রাজ্যের বিরুদ্ধে তোপও দেগেছেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের পূর্ব ক্ষেত্রের সম্পাদক অমিয় সরকার। বৃহস্পতিবার এপ্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ আমাদের সংগঠনের তরফে মালদহের ওই অঞ্চলে গরিব পরিবারের একশোর অধিক যুবক-যুবতীর গণবিবাহের আয়োজন করা হয়েছিল। যে কাজ রাজ্যের করা উচিত ছিল, মানবিকতার খাতিরে তা আমরাই করছিলাম। কিন্তু, তাতে কিছু অসামাজিক লোক হামলা চালায়। মিথ্যে অভিযোগে আমাদের কয়েকজন সদস্যের নামে মামলাও দায়ের করা হয়েছে। তবে এইভাবে আমাদের সংগঠনের কাজকে আটকানো যাবে না। কেউ যেন ইতিহাসকে ভুলে না যায়। আজকে যে অসামাজিক লোকগুলি ক্ষমতায় থেকে তার অপব্যবহার করছে, সময় তাদের প্রত্যেকের থেকে হিসাব বুঝে নেবে। কেউই ছাড় পাবে না।’

[আরও পড়ুন: ট্যাংরায় দুর্ঘটনার কিনারায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ স্থানীয়দের, ড্রাম ফেলে পথ অবরোধ ]

 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বুধবার নদিয়ার কৃষ্ণনগরে আয়োজিত একটি জনসভায় গিয়ে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন তৃণমূল সুপ্রিমো। গণবিবাহের অনুষ্ঠানের নামে এই সংগঠন রাজ্যে ধর্মান্তকরণের চেষ্টা করছে বলেও অভিযোগ জানান।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে