BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শুক্রবার ২৭ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

রণক্ষেত্র আমডাঙা: রাজনৈতিক সন্ত্রাসের বলি তিন, স্কুল বন্ধের নির্দেশ প্রশাসনের

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: August 29, 2018 9:51 am|    Updated: August 29, 2018 1:20 pm

Violence mars village board formation in Amdanga, 3 killed

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠনকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল উত্তর ২৪ পরগনার  আমডাঙা৷ তৃণমূলের সঙ্গে বিরোধীদলের সংঘর্ষে মৃত তিন রাজনৈতিক কর্মী৷ এদের মধ্যে দু’জন তৃণমূল ও একজন সিপিএম কর্মী রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে৷ সংঘর্ষে জখম হয়েছে দু’পক্ষের অন্তত ২৮ জন৷ এদের মধ্যে সাত জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক৷ আহতদের বারাসত স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷ মঙ্গলবার রাতের এই ঘটনার রেশ বুধবারও অব্যাহত থাকায় আমডাঙার তাড়াবেড়িয়ায় সমস্ত স্কুল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ৷ গোটা পরিস্থিতির উপর কড়া নজর রাখছেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক ও আমডাঙার বিধায়ক রফিকার রহমান৷ পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে রাতেই হাসপাতালে যান তৃণমূলের দুই বিধায়ক৷ কথা বলেন আহত নেতা-কর্মীদের সঙ্গে৷ এদিনের এই ঘটনায় মোট ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷ হাসপাতাল থেকে ছয় সিপিএম কর্মীকেও গ্রেপ্তার করেছে আমডাঙা থানার পুলিশ৷

[প্রেমের টানে ইউক্রেন থেকে আরামবাগ ছুটে এসেও স্বপ্নভঙ্গ বিদেশিনীর]

পুলিশ সূত্রে খবর, পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠনকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার রাতে উত্তর ২৪ পরগনার আমডাঙার তাড়াবেড়িয়ায় বোমাবাজি ও গুলির লড়াই শুরু হয়৷ দুষ্কৃতীদের ছোড়া গুলি ও বোমার আঘাতে মৃত্যু হয়  কুদ্দুস গনি ও নাসির হালদার নামে দুই তৃণমূলকর্মীর৷ এদিনের এই ঘটনায় মোজাফর পিঁয়াদা নামে এক সিপিএম কর্মীরও মৃত্যু হয় বলে স্থানীয় সূত্রে খবর৷

[পঞ্চায়েত বোর্ড গঠন ঘিরে উত্তপ্ত বনগাঁ, কোপানো হল তৃণমূল কর্মীকে]

ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার তাজা বোমা৷

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার শুরু হয় তাড়াবেড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ১৯টি আসনে বোর্ড গঠনের কাজ৷ ১৯টির মধ্যে তৃণমূল দখলে রয়েছে ন’টি আসন৷ সিপিএমের দখলে সাত ও একটি করে আসন রয়েছে কংগ্রেস ও নির্দলের দখলে৷ অভিযোগ, তৃণমূল ও সিপিএমের বোর্ড গঠনকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার পরিস্থিতি তৈরি হয়৷ মাত্র সাতটি আসন নিয়ে বোর্ড গঠনের দাবি তোলে সিপিএম৷ বাঁধা দেয় তৃণমূল৷ তৃণমূলের বাঁধা পেয়ে বোমা-বন্দুক নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা৷ শুরু হয় বোমাবাজি৷ হামলা-পালটা হামলায় তিন রাজনৈতিক কর্মীর মৃত্যু হয়৷ জখম হন উভয় পক্ষের মোট ২৭ জন৷ এদিনের এই হামলার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় আমডাঙা থানার বিশাল পুলিশ৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এলাকায় শুরু হয়েছে পুলিশ তহল৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে