BREAKING NEWS

৩ বৈশাখ  ১৪২৮  শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

প্রথম দফা ভোটে ১৯১ জন প্রার্থীর মধ্যে ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত কত? কোটিপতি কারা?

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: March 26, 2021 9:00 pm|    Updated: March 26, 2021 9:04 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: প্রতীক্ষার অবসান। মাহেন্দ্রক্ষণ উপস্থিত। শনিবার সকাল ৭টা বাজলেই বঙ্গে শুরু হয়ে যাবে ভোটযুদ্ধ। রাজ্যে রাজনৈতিক অশান্তির আবহে এবার নজিরবিহীন নিরাপত্তার ঘেরাটোপে একুশের বিধানসভা ভোট (WB Assembly Polls) হতে চলেছে। প্রথম দফার ভোট শুরু আগের দিন তাই ৫ জেলার ৩০ আসনে টানটান উত্তেজনা। মোতায়েন করা হয়েছে বিপুল সংখ্যক কেন্দ্রীয় বাহিনী, যা যাবতীয় রেকর্ড ভেঙেছে বলে দাবি নির্বাচনী বিশেষজ্ঞদের। স্পর্শকাতর এলাকাগুলিকে কড়া নজরে রাখছেন জওয়ানরা। বঙ্গে প্রথম দফার ভোটে প্রার্থী তালিকাও বেশ চমকপ্রদ। ৩০ আসনের যাবতীয় খুঁটিনাটি দেখে নিন একঝলকে –

  • ভোটগ্রহণ ৫ জেলার (ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম মেদিনীপুর, পূর্ব মেদিনীপুর) ৩০ টি বিধানসভা কেন্দ্রে
  • মোট প্রার্থী – ১৯১ জন, এর মধ্যে মাত্র ১০ শতাংশ প্রার্থী মহিলা।
  • কোটিপতি প্রার্থী – ১৯ শতাংশ
  • ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত প্রার্থী – ৪৮ শতাংশ
  • গুরুতর মামলায় অভিযুক্ত প্রার্থী – ৪২ শতাংশ

নিরাপত্তা চিত্র: 

  • ৩০ কেন্দ্রে মোট কেন্দ্রীয় বাহিনী – ৬৮৪ কোম্পানি (প্রতি কেন্দ্রে গড়ে ২৩ কোম্পানি), সঙ্গে প্রচুর সংখ্যক রাজ্য পুলিশ
  • কেন্দ্রীয় বাহিনী: পুরুলিয়া (৯ কেন্দ্র) – ১৮৬ কোম্পানি

                                  ঝাড়গ্রাম (৪ কেন্দ্র) – ১৪৪ কোম্পানি
                                পশ্চিম মেদিনীপুর (৬ কেন্দ্র) – ১২৪ কোম্পানি
                                বাঁকুড়া (৪ কেন্দ্র) – ৮৪ কোম্পানি
                               পূর্ব মেদিনীপুর (৭ কেন্দ্র) – ১৪৮ কোম্পানি

[আরও পড়ুন: তৃণমূল কার্যালয়ের ভিতরে বোমা বিস্ফোরণ, বাঁকুড়ার কোতুলপুরে জখম ৪

নির্বাচন সুষ্ঠু করতে অতিরিক্ত কেন্দ্রীয় বাহিনী (Central Force) মোতায়েনের জন্য বারবারই কমিশনের কাছে আরজি জানিয়ে এসেছে বিজেপি (BJP)। আর তাতে সাড়ে দিয়েই বাংলায় এত সংখ্যক কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে বলে পালটা অভিযোগে শান দিয়েছে শাসকদল তৃণমূল। একদিকে বিজেপি নেতাদের বার্তা, নির্ভয়ে ভোট দিন। অন্যদিকে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারবার জনসভায় বলছেন, বাইরের রাজ্যের পুলিশ এনে ভোট লুটের চক্রান্ত করছে বিজেপি।ফলে ভোটের দিন সতর্ক থেকে ইভিএম পাহারা দিন। এই রাজনৈতিক টানাপোড়েনের মধ্যে শেষ হাসি কে হাসবে, তার প্রথম পরীক্ষা হয়ে যাবে শনিবারই।

[আরও পড়ুন: বাংলার নির্বাচনে দলবদলুদের ব্যর্থতার নজিরই বেশি! অতীত রেকর্ড চিন্তায় রাখবে বিজেপিকে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement