BREAKING NEWS

২৪ বৈশাখ  ১৪২৮  শনিবার ৮ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সোনারপুরে আক্রান্ত তৃণমূল কর্মীরা, বেধড়ক মারধরের অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

Published by: Paramita Paul |    Posted: April 13, 2021 9:36 am|    Updated: April 13, 2021 9:36 am

An Images

দেবব্রত মণ্ডল, বাসন্তী: ভোটের মরশুমে রাজনৈতিক হিংসায় উত্তাল গোটা রাজ্য। কোথাও রাজ্যের শাসকদলের নেতা-কর্মীরা আক্রান্ত হচ্ছেন তো কোথাও আবার বিরোধী দলের সমর্থকরা মার খাচ্ছেন। এবার ভোট পরবর্তী সেই হিংসায় ধুন্ধুমার রাজপুর সোনারপুর (Sonarpur) পুরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের জলপোল এলাকায়৷

সোনারপুর পুর এলাকায় আক্রান্ত তৃণমূল কর্মীরা। অভিযোগের তির বিজেপির দিকে। আক্রান্ত তৃণমূল নেতা-কর্মীদের অভিযোগ, সোমবার রাতে দলীয় কর্মীকে মারধরের খবর পেয়ে তাঁরা ছুটে যান। পরে অবশ্য জানতে পারেন উড়ো খবর দিয়ে তাঁদের ফাঁদে ফেলা হয়েছিল। অভিযোগ, ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই রাস্তায় তাঁদের উপর চড়াও হয় বিজেপি কর্মীরা। রড, লাঠি ও বন্দুকের বাঁট দিয়ে তাঁদের মারধর করা হয় বলে খবর। নিমাই সরদার ও রণ সরদার নামে দুই তৄণমুল কর্মীর মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ। আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৪ জন। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে আসে নরেন্দ্রপুর থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। ঘটনায় ইতিমধ্যে ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন : রাজ্যের ভোটপ্রচারে করোনা সতর্কতা বাধ্যতামূলক হোক, কমিশনকে চিঠি অধীরের]

এই ঘটনায় এই ওয়ার্ডের প্রাক্তন পুরমাতা পাপিয়া হালদারের অভিযোগ, “নির্বাচনে খারাপ ফল করবে জেনেই এখন থেকে সন্ত্রাস শুরু করেছে বিজেপি। বিভিন্ন এলাকায় তৃণমূলের উপর হামলা চালানো হচ্ছে। এলাকায় আতঙ্কের পরিবেশ তৈরির চেষ্টা করা হচ্ছে।” এই অভিযোগ অবশ্য অস্বীকার করেছেন সোনারপুর উত্তর বিধানসভা এলাকার ১ নম্বর মণ্ডলের বিজেপি সভাপতি তাপু চৌধুরী। তাঁর পালটা অভিযোগ তৄণমুলের গোষ্ঠী দ্বন্দ্বের জেরেই এই ঘটনা ঘটেছে৷ তাঁর দাবি, “বিভিন্ন এলাকায় গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে এই ধরণের ঘটনা ঘটছে। উলটে বিজেপি নেতা-কর্মীদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে। রাজ্যজুড়ে এই ধরণের কীর্তি করছে তৃণমূল।” সোমবার রাতের ঘটনায় এখনও এলাকায় উত্তেজনা রয়েছে। আতঙ্কে ভুগছেন এলাকাবাসী।

[আরও পড়ুন : দুর্গা মমতা, অসুর রূপে মোদি! তৃণমূল সমর্থকদের তৈরি মূর্তি ঘিরে বিতর্ক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement