BREAKING NEWS

২৪ বৈশাখ  ১৪২৮  শনিবার ৮ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

তৃণমূলের পতাকা ও আগ্নেয়াস্ত্র হাতে সুতিতে তাণ্ডব দুষ্কৃতীদের, দেখা নেই পুলিশ-বাহিনীর!

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 26, 2021 11:47 am|    Updated: April 26, 2021 12:13 pm

An Images

শাহাজাদ হোসেন, ফরাক্কা: ভোটের সকালে উত্তাল মুর্শিদাবাদের (Murshidabad) সুতি। বুথের চারশো মিটারের মধ্যেই তৃণমূলের পতাকা ও আগ্নেয়াস্ত্র হাতে রীতিমতো তাণ্ডব চালাচ্ছে দুষ্কৃতীরা। আতঙ্কে বুথে পৌঁছতেই পারছে না আমজনতা। অভিযোগ, ঝাড়খণ্ড (Jharkhan) থেকে টাকার বিনিময়ে দুষ্কৃতীদের এলাকায় আনা হয়েছে। 

সপ্তম দফায় অর্থাৎ আজ মুর্শিদাবাদের মোট ১১ টি আসনে চলছে ভোট গ্রহণ। সকাল থেকেই জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অশান্তির খবর প্রকাশ্যে আসে। কোথাও ভোটারদের বাধা দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। কোথাও পোলিং এজেন্টদের বসতে না দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। এসবের মাঝে বেলা ১০ টা নাগাদ সুতির লক্ষ্মীপুর এলাকায় তৃণমূলের পতাকা, আগ্নেয়াস্ত্র ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে কয়েকজনকে ঘুরতে দেখেন স্থানীয়রা। অভিযোগ, ভোটারদের বুথে যেতে বাধা দেয় তারা। এলাকায় রীতিমতো তাণ্ডব চালায়। আতঙ্কে ভোটের বুথের দিকে পা বাড়াননি অনেকেই। স্থানীয়দের অভিযোগ, বুথের চারশো মিটারের মধ্যে দুষ্কৃতীরা তাণ্ডব চালালেও পুলিশের দেখা মেলেনি। এমনকী কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদেরও দেখা যায়নি। 

WB Polls : Allegations of threatened voters in Murshidabad

[আরও পড়ুন:  ভোটের মুখে বীরভূমের পুলিশ প্রশাসনে বড়সড় রদবদল, সরানো হল দুবরাজপুর ও নলহাটির ওসিকে]

কিন্তু প্রকাশ্যে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে যারা ঘুরছে তাদের পরিচয় কী? স্থানীয়দের দাবি, আড়াই লক্ষ টাকার বিনিময়ে ঝাড়খণ্ড থেকে গুণ্ডা ভাড়া করে এনেছে তৃণমূল। এক একটি দলে রয়েছে আটজন করে। এই দুষ্কৃতীরা ওই দলেরই সদস্য। যদিও এবিষয়ে শাসকদলের কোনও প্রতিক্রিয়া এখনও মেলেনি।  অন্যদিকে, এদিন মালদহের একটি বুথে কংগ্রেসের এক কর্মী ব্লেড দিয়ে আক্রমণের অভিযোগ উঠেছে দলেরই এক নেতার বিরুদ্ধে। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে চাঁচোলে। 

[আরও পড়ুন:  ভোট দিয়ে ফিরেই মৃত্যু মুর্শিদাবাদের অশীতিপর বৃদ্ধের, কান্নায় ভেঙে পড়ল পরিবার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement