BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাজ্যে কোন ক্ষেত্রে মিলবে ছাড় আর কোনটায় না? আনলক থ্রি’র গাইডলাইন প্রকাশ করল নবান্ন

Published by: Sayani Sen |    Posted: July 30, 2020 6:51 pm|    Updated: July 31, 2020 12:45 am

An Images

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: করোনা সংক্রমণ রুখতে জারি করা হয়েছিল লকডাউন (Lockdown)। তবে তার প্রভাব পড়েছিল অর্থনীতিতে। তাই আনলক পর্বের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতির চাকাকে সচল রাখার চেষ্টা চলছে। আনলক ১ শেষ হয়ে গিয়েছে। আনলক ২-ও শেষের পথে। মাসপয়লায় শুরু হবে আনলক ৩। ইতিমধ্যেই কেন্দ্র গাইডলাইন প্রকাশ করেছে। আগস্টের শুরু থেকে কোন কোন ক্ষেত্রে মিলবে ছাড় আর কোন কোন ক্ষেত্রে ছাড় মিলবে না, বৃহস্পতিবার সে সম্পর্কিত নির্দেশিকা জারি করল নবান্ন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগেই জানিয়েছেন, আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত রাজ্যে লকডাউন জারি থাকবে। কনটেনমেন্ট জোনগুলিতে জারি থাকবে কড়াকড়িও। এবার চলুন একনজরে দেখে নেওয়া যাক আনলক ৩-তে রাজ্যে কোন কোন ক্ষেত্রে মিলবে না ছাড়।

১. স্কুল, অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র, কলেজ-সহ যেকোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।
২. বন্ধ থাকবে সিনেমা হল, সুইমিং পুল, বিনোদন পার্ক, পানশালা, অডিটোরিয়াম।
৩. যেকোনও রাজনৈতিক, সামাজিক, ধর্মীয়, বিনোদনমূলক, শিক্ষামূলক জমায়েত করা যাবে না।

কেন্দ্রের নির্দেশিকার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে ৫ আগস্ট থেকে খুলবে যোগা সেন্টার এবং জিম। তবে কনটেনমেন্ট জোনের ভিতর যোগা সেন্টার কিংবা জিম খোলা যাবে না।

[আরও পড়ুন: করোনার আশঙ্কা, উপসর্গযুক্ত ধৃতদের জন্য ‘আইসোলেশন লকআপ’ চালুর ভাবনা কলকাতা পুলিশের]

সংক্রমণের চেন ভাঙতে সপ্তাহে দু’দিন করে সম্পূর্ণ লকডাউন থাকবে। চলতি মাসে ৫, ৮, ১৬, ১৭, ২৩, ২৪ এবং ৩১ আগস্ট সম্পূর্ণ লকডাউন রাজ্যে। ওই দিনগুলিতে দোকান, বাজার, অফিস সবই বন্ধ থাকবে। তবে দেখে নিন কোন কোন ক্ষেত্রে মিলবে ছাড়।

১. যেকোনও রকমের স্বাস্থ্য পরিষেবার সঙ্গে সংযুক্ত কাজকর্মে কোনও বাধা থাকবে না।
২. খোলা থাকবে ওষুধের দোকান।
৩. আইন সংক্রান্ত, দমকলের মতো জরুরি পরিষেবা মিলবে।
৪. বিদ্যুৎ, জলের মতো জরুরি পরিষেবার ক্ষেত্রেও কোনও বাধানিষেধ নেই।
৫. শিল্পক্ষেত্রে ইন-হাউস কর্মীদের নিয়ে কাজ চলতে পারে।
৬. কৃষিক্ষেত্রে, চা বাগানে কাজ হতে পারে।
৭. আন্তঃরাজ্য জিনিসপত্র পরিবহণে ছাড়।
৮. আরবিআই-এর বিধি অনুযায়ী ই-কমার্সের কাজ চলবে।
৯. সংবাদমাধ্যমের ক্ষেত্রে মিলবে ছাড়।
১০. রান্না করা খাবার হোম ডেলিভারি করা যাবে।

এছাড়াও নবান্নের তরফে জানানো হয়েছে, জেলাশাসক কোনও জায়গার করোনা পরিস্থিতি অনুযায়ী বিধিনিষেধ কঠোর করতে পারেন। রাস্তায় বেরলে অবশ্যই পরতে হবে মাস্ক। মানতে হবে দূরত্ব বিধিও।

[আরও পড়ুন: করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ হওয়া সত্ত্বেও সৎকারে বাধা, ১৮ ঘণ্টা বেনিয়াপুকুরের ঘরে পড়ে বৃদ্ধার দেহ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement