২৭ কার্তিক  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৪ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৭ কার্তিক  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৪ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দুর্গাপুজোর আগে বেশ কয়েকদিন লাগাতার বৃষ্টিতে বাঙালি মনে শঙ্কা তৈরি হয়েছিল। পুজোর আনন্দই হয়তো মাটি হতে চলেছে। কারণ সেই সময় বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছিল হাওয়া অফিস। বৃষ্টি হলেও তা অবশ্য সবটা মাটি করতে পারেনি। অল্পের উপর দিয়েই আশঙ্কা কেটে গিয়েছিল। কিন্তু কালীপুজো ভালয় ভালয় কাটবে তো? ফের উঠল প্রশ্নটা। কারণ এবারও আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানাচ্ছে, আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় হতে পারে ভারী বৃষ্টি। শুক্র থেকে শনিবার পর্যন্ত যা চলবে।

[আরও পড়ুন: প্লাস্টিক বর্জনের আরজি, সংকল্প যাত্রায় জনতার দরবারে রূপা গঙ্গোপাধ্যায়]

শুক্রবার ধনতেরস। শনিবার ভূত চতুর্দশী। আর তার পরের দিনই কালীপুজো ও দিওয়ালি। তার আগে আজ মঙ্গলবার সকাল থেকেই বৃষ্টিতে ভিজেছে একাধিক জেলা৷ হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই সেই বৃষ্টির পরিমাণ আরও খানিকটা বাড়বে৷ কলকাতা এবং উপকূলবর্তী বেশ কয়েকটি জেলায় হালকা ও ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। বালি হাওয়ার জেরেই হচ্ছে বৃষ্টি৷ এছাড়াও অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূলে নিম্নচাপ হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে৷ যার জেরে উপকূলবর্তী এবং ওড়িশা-ঝাড়খণ্ড লাগোয়া জেলাগুলিতে বুধবার থেকে বাড়তে পারে বৃষ্টি৷ স্বাভাবিকভাবেই সপ্তাহান্তে রাজ্যে বৃষ্টির সম্ভাবনা দেখা দেওয়ায় সমস্যা হতে পারে কালীপুজোর প্রস্তুতিতে৷ বিশেষ করে ধনতেরসে৷ যেদিন লক্ষ্মী ঘরে তুলতে সোনার দোকানগুলির বাইরে লম্বা লাইন পড়ে যায়৷ কিন্তু ভারী বৃষ্টি হলে কেটাকানা লাটে উঠতে পারে বঙ্গবাসী৷ যদিও পুজোর দিন বৃষ্টি হতে পারে কি না, সে বিষয়টি এখনও স্পষ্ট করা হয়নি৷

তবে বৃষ্টি কলমেই সপ্তাহের শেষে ঢুকতে পারে উত্তুরে হাওয়া৷ যা পূবালি হাওয়ার জন্য আপাতত আটকে আছে৷ আর উত্তুরে হাওয়া প্রবেশ করলেই দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে নামবে তাপমাত্রা৷ অর্থাৎ আবহবিদদের পূর্বাভাস সত্যি হলে নভেম্বরের শুরুতেই ঠান্ডার আমেজ পেতে শুরু করবেন রাজ্যবাসী৷

[আরও পড়ুন: টাকা দিলেই মিলছে অস্ত্রের লাইসেন্স, জালিয়াতি প্রশাসনিক ভবনেই]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং