১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

জোটে থাকলেও বামেদের অনুকরণ নয়, নেতাদের বার্তা অধীরের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 19, 2016 11:43 am|    Updated: June 19, 2016 11:47 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: সিপিএমের সঙ্গে জোট থাকবে৷ আবার কংগ্রেসের সংগঠনও আগে দেখতে হবে৷ সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগে দু’রকম নীতি নিয়ে চলছে প্রদেশ কংগ্রেস৷ দলের নেতা-বিধায়কদের বার্তা দেওয়া হয়েছে, ‘বামকরণ’ না করতে৷ অন্যদিকে আবার দলের কর্মসূচিতে যোগদানের জন্য চিঠি দিয়ে আমন্ত্রণ করা হয়েছে সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্রকে৷

২০ বছর পর বামেদের পিছনে ফেলে ৪৪টি আসন জিতে রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল হয়েছে কংগ্রেস৷ কিন্তু বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর বামেদের রিপোর্টে উল্লেখিত হয়েছে, কংগ্রেস প্রার্থীদের বাম কর্মী-সমর্থকরা ভোট দিলেও, বাম প্রার্থীদের ভোট দেয়নি কংগ্রেস৷ এও স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে, বামেদের সঙ্গে জোট না হলে কংগ্রেসের ৪৪টি আসনে জেতা সম্ভব হত না৷ এই পরিস্থিতিতে কংগ্রেস তাই দ্বিধাগ্রস্ত অবস্থায় রয়েছে৷ বামেদের সঙ্গ ত্যাগ নাকি যৌথ কর্মসূচি– সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগছে কংগ্রেস৷

শুক্রবার বিধানসভায় কংগ্রেসের পরিষদীয় দলের বৈঠকে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরি নির্বাচিত ৪৪ জন কংগ্রেস বিধায়ককে বার্তা দেন, “জোট থাকুক৷ কিন্তু বামকরণ থেকে সতর্ক থাকুন৷” দলের বিধায়কদের অধীর বুঝিয়ে দিয়েছেন, বামেদের অনুকরণ করে চলবেন না৷ আগে নিজের দলের দিকে নজর দিন৷

শনিবার আবার অধীর চৌধুরি জানালেন, আগামী ২৫ জুন মৌলালি রামলীলা ময়দান থেকে ধর্মতলা গান্ধীমূর্তি পর্যন্ত মূল্যবৃ‌দ্ধি ইস্যুতে পদযাত্রা করা হবে৷ ওই পদযাত্রায় যোগ দেওয়ার জন্য কংগ্রেসের পক্ষ থেকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্রকে৷ সময় পেলে সূর্যবাবু আসবেন বলে জানিয়েছেন অধীর৷ বামেদের কর্মসূচিতে কংগ্রেসকে ডাকা হয়নি৷ কংগ্রেসকে বাদ দিয়েই আলাদাভাবে কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেছেন বামফ্রণ্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু৷ এই প্রসঙ্গেই অধীর চৌধুরি বলেন, “আমরা কখনও প্রতিশ্রূতি দিইনি একসঙ্গে সব কর্মসূচি করব৷ তবে জোট থাকবে, একাধিক ইস্যুতে জোটবভাবে আন্দোলন হবে৷”

কংগ্রেস আগামিদিনে ‘ডোল পলিট্রিক্স’-এর পথ ধরতে চাইছে৷ কর্মসূচি হবে সব সরকার বিরোধী৷ কংগ্রেস নেতাদের কথায়, তামিলনাড়ুতে গরিব মানুষ বিনা পয়সায় চাল পান৷ ঝাড়খণ্ডে এক টাকায় চাল পান৷ এখানে কেন ২ টাকায় চাল দেওয়া হবে৷ আমরা আন্দোলন করব৷ পাশাপাশি কন্যাশ্রীর টাকা বছরে নয় প্রতি মাসে ৫০০ টাকা করে দেওয়ার দাবি নিয়ে রমজান মাসের পর থেকে লাগাতার আন্দোলনের কর্মসূচি নিয়েছে প্রদেশ কংগ্রেস৷

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement