১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

প্রতিহিংসার রাজনীতির বিরুদ্ধে পথে নামবে তৃণমূল, হুঁশিয়ারি মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 3, 2017 4:07 pm|    Updated: January 3, 2017 5:59 pm

Will fight politics of vendetta, says furious Mamata after Sudip Banerjee's arrest

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রথমে সাংসদ তাপস পাল এবং ঠিক তার তিনদিন পরেই গ্রেপ্তার হলেন তৃণমূল সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়৷ আর সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের গ্রেপ্তারির বিরোধিতায় সোচ্চার হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তৃণমূল সাংসদের গ্রেপ্তারির ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “রাজনৈতিক বিরোধিতার জন্য প্রতিহিংসার রাজনীতি করছে কেন্দ্র৷ এর বিরোধিতায় কাল থেকেই পথে নামবে দল৷” কেন্দ্রের বিরোধিতা করায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে বারংবার কেন্দ্রের আঘাত হানার প্রতিবাদ করেন মুখ্যমন্ত্রী৷ জানিয়ে দেন আগামিকাল থেকেই দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে নেতৃত্ব ভাগ করে দিয়ে আন্দোলনে নামবে তৃণমূল কংগ্রেস৷

এছাড়াও এদিন মেদিনীপুরে এক জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে সাম্প্রদায়িক হিংসার রাজনীতি নিয়েও কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী৷ বলেন, “দাঙ্গা করব না৷ দাঙ্গা করতে দেব না৷ যদি কেউ দাঙ্গার রাজনীতি করার চেষ্টা করে, সেই রাজনীতি পশ্চিমবঙ্গের মাটিতে বরদাস্ত করব না৷” মঙ্গলবার জঙ্গলমহলে বক্তব্য রাখতে গিয়ে ঠিক এই ভাবেই ধর্মীয় রাজনীতির বিরোধিতা করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়৷ সুপ্রিম কোর্টের সাম্প্রতিক সিদ্ধান্তের প্রশংসা করে এদিন মোদি বিরোধিতায় রীতিমতো সোচ্চার হলেন মুখ্যমন্ত্রী৷

মঙ্গলবার রাজ্য বনপ্রাণ দিবস উপলক্ষে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, “সুপ্রিম কোর্টের আইনকে স্বাগত জানিয়ে বলি, ধর্ম মানে ভালবাসা৷ ধর্ম মানে সংকীর্ণতা নয়৷ দাঙ্গা নয়৷ ভোট রাজনীতি করা নয়৷ হিন্দু-মুসলমানের সঙ্গে দাঙ্গা লাগিয়ে দেওয়া নয়৷ এই ধরনের কাজকে কখনও বরদাস্ত করা হবে না৷”

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা দেওয়ার পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী এদিন আবারও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে মুখ খোলেন৷ নোট বাতিলের পর থেকে সাধারণ মানুষ যে সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন, তার কথাই আবারও বলেন মমতা৷ মোদিকে কটাক্ষ করে মমতা বলেন, বড় বড় কথা বললে সবকিছু হয় না৷ সব জায়গায় সঠিক পরিবহন ব্যবস্থা নেই৷ দেশের সব অঞ্চলে ট্রেন, বাস পরিষেবা নেই৷ নেই ব্যাঙ্ক এবং পোস্ট অফিস৷ সেই অঞ্চলে মানুষ কেমনভাবে নগদ টাকার ব্যবস্থা করবে তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন মুখ্যমন্ত্রী৷ তিনি বলেন, “মোদি বাবু দেশের মানুষকে ভয় দেখাচ্ছেন৷ মোদির বিরোধিতা করলেই তাঁদের পিছনে সিবিআই, আয়কর দপ্তর লেলিয়ে দেওয়া হচ্ছে৷ মানুষের বেঁচে থাকা, সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার কেড়ে নেওয়া হচ্ছে৷”

এদিন সোজাসুজি রোজভ্যালি কাণ্ডে তৃণমূল সাংসদদের সিবিআই জেরা এবং গ্রেপ্তারি নিয়ে মুখ না খুললেও মুখ্যমন্ত্রী সাফ জানিয়ে দেন, “দেশে চিটফান্ড কেলেঙ্কারি চলছে ১৯৮০ থেকে৷ আর তাই মোদির জ্ঞান, সিপিএময়ের জ্ঞান নেব না৷ অনেক কষ্ট করে রাজনীতি করি৷ কালো টাকা বাতিলের ঘটনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে গরিব মানুষরা৷ মোদি বাবু দেশটাকে বিক্রি করে দিয়েছেন৷” মুখ্যমন্ত্রী প্রশ্ন করেন, “পেটিএমে কী মধু আছে?”

এদিন বক্তৃতায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, নোটবন্দি নয় দাঙ্গাপন্থী নয়তো জনগনকে করবন্দি করেই কেন্দ্রীয় সরকার রাজনীতি করছে৷ পরিকল্পনাহীন অর্থনৈতিক সন্ত্রাস চলছে দেশে, এমনটাও দাবি করেন তিনি৷

এর পাশাপাশি, ২০১৭ সালের পয়লা বৈশাখ থেকে ঝাড়গ্রাম, কালিম্পং, আসানসোল নতুন জেলা হিসাবে পরিচয় পাবে বলেও জানান তিনি৷ মুখ্যমন্ত্রী এদিন আরও বলেন, “হল্লাগাড়ির হল্লা চলছে৷ আমার ছাত্রযুব এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে৷ অর্থনৈতিক সন্ত্রাস এবং গণতান্ত্রিক সন্ত্রাস মেনে নেবে না৷” সরকারকে স্তব্ধ করে দেবেন বলেও এদিন চ্যালেঞ্জ জানান মুখ্যমন্ত্রী৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে