BREAKING NEWS

৬ আষাঢ়  ১৪২৮  সোমবার ২১ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘ঘর’ করতে অরাজি স্ত্রী কাটল স্বামীর যৌনাঙ্গ!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 25, 2017 3:19 am|    Updated: May 25, 2017 4:02 am

Woman chops off husband’s genitals in Burdwan

স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: স্বামীর সঙ্গে থাকতে চান না৷ তাই রাগে ঘুমন্ত স্বামীর যৌনাঙ্গে ব্লেড চালিয়ে দিয়েছেন স্ত্রী৷ এমন অভিযোগ আহত স্বামীর৷ চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম বর্ধমানের জামুড়িয়ায় নিঘায়৷ প্রায় ৭০ শতাংশ কেটে গিয়েছিল যৌনাঙ্গটি৷ প্রচুর রক্তক্ষরণও হয়৷ আহত যুবককে প্রাণে বাঁচানোই সংশয় ছিল৷ তবে কার্যত অসাধ্যসাধন করেছে আসানসোল জেলা হাসপাতাল৷ অস্ত্রোপচার করে সেই যৌনাঙ্গ জোড়া লাগিয়েছেন আসানসোল জেলা হাসপাতালের চিকিৎসক৷

আহত স্বামীর নাম মহম্মদ নৌসাদ৷ অভিযোগ, সোমবার রাতে যখন নিজের ঘরে নৌসাদ ঘুমোচ্ছিলেন৷ তখনই আচমকা যৌনাঙ্গে তীব্র ব্যাথা অনুভব করেন তিনি৷ চিৎকার করে ওঠেন ব্যাথায়৷ নৌসাদের চিৎকার শুনে পরিবারের অন্যরা ছুটে আসেন৷ দেখেন রক্তে ভেসে যাচ্ছে গোটা শয্যা৷ প্রায় সঙ্গে সঙ্গে আসানসোল জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে৷ প্রায় এক ঘণ্টার অস্ত্রোপচারে যৌনাঙ্গ জোড়া লাগিয়েছেন চিকিৎসক রাহুল আমিন৷ পরে পুলিশকে নৌসাদ জানান, তাঁর স্ত্রীই এই কাজ করেছেন৷ তাঁর যৌনাঙ্গ কেটে দেওয়ার পর স্ত্রী পাশের ঘরে গিয়ে শুয়েও পড়ে বলে দাবি তাঁর৷

[মোবাইলে মনুয়ার আপত্তিজনক সেলফির জন্যই কি খুন অনুপম?]

গোটা ঘটনায় অনেকেই বারাসতের ‘মনুয়া কাণ্ডের’ ছায়া দেখছেন৷ কয়েকদিন আগে স্বামী অনুপম সিংহকে খুন করতে প্রেমিক অজিতের সাহায্য নেয় স্ত্রী মনুয়া৷ সেই ঘটনায় রাজ্যজুড়ে শোরগোল পড়েছে৷ তবে জামুড়িয়াতেও সেই ঘটনা ঘটতে চলেছিল কিনা সে ব্যাপারে পুলিশ এখনও নিশ্চিত নয়৷ অবশ্য প্রাথমিকভাবে পুলিশ অনেকগুলি সূ্ত্র পেয়েছে৷ নৌসাদের স্ত্রী স্বামীর ঘর করতে অরাজি ছিলেন৷ মাস ছয়েক আগে বিয়ে হয়েছিল তাঁদের৷ বিয়ের পর ৪০ দিনের মাথায় শ্বশুরবাড়ি যান নৌসাদ৷ তার পর আর স্ত্রী ফিরতে চায়নি৷ পরে আসতে রাজি হলেও ট্রেন থেকে নেমে যায় মাঝপথে৷ কিছুদিন পর ফিরে আসে৷ তার পর এই ঘটনা৷ শোনা গিয়েছে ঘটনার দিন রাতে নাকি দু’বার সহবাসও করেছিলেন তাঁরা৷ তাহলে কি নৌসাদের অতিরিক্ত যৌন খিদে মেটাতে অক্ষম ছিলেন তাঁর স্ত্রী? না কি কোনও অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি?  উঠছে এমন প্রশ্ন৷

আসানসোল জেলা হাসপাতালের চিকিৎক রাহুল আমিন জানা, নৌসাদের যৌনাঙ্গের ৭০ শতাংশ কেটে গিয়েছিল৷ করপাস স্পঞ্জিসাম আংশিক কেটেছিল এবং করপোরা কেভেরমোশা পুরোটাই কেটে গিয়েছিল৷ প্রচুর রক্তপাতও হয়েছে৷ রোগীর অবস্থা সঙ্কটজনক ছিল৷ বড় হাসপাতালে রেফার করার প্রয়োজন ছিল৷ কিন্তু তা করতে গেলে রোগীর প্রাণ সংশয় ছিল৷ তাই ঝুঁকি নিয়ে জেলা হাসপাতালেই অস্ত্রোপচার করা হয়েছে৷ রোগী এখন অনেকটাই সুস্থ বলে তিনি জানিয়েছেন৷ আসানসোল-দুর্গাপুর পুলিশের এসিপি (সেন্ট্রাল) বরুণ বৈদ্য বলেন, “এমন একটা ঘটনার খবর পেয়েছি৷ তবে কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি৷” তবে অভিযোগ দায়ের না হলেও গোটা ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে জেলা পুলিশ৷ কারণ নৌসাদ পুলিশের কাছে বয়ানে দাবি করেছেন স্ত্রীই তাঁর যৌনাঙ্গ কেটেছে৷ এদিকে, নৌসাদের পরিবারের তরফ থেকে বিহারের লক্ষ্মীসরাইয়ে তাঁর শ্বশুরবাড়িতে খবর পাঠানো হয়েছে৷ শ্বশুরবাড়ির লোকজন এলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে৷

[হাতকড়া পরেই মেয়ের বিয়ে দিলেন কন্যাদায়গ্রস্ত পিতা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement