৪ ভাদ্র  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২২ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সন্দীপ মজুমদার, উলুবেড়িয়া: এবার ক্যানসার রোগীদের জন্য চুল দান করে অনন্য নজির স্থাপন করলেন বাউড়িয়ার গৃহবধূ ছন্দা ঘোষ। সম্প্রতি উত্তরবঙ্গের রায়গঞ্জের দ্বিতীয় শ্রেণির পড়ুয়া তিতির ক্যানসারে আক্রান্ত রোগীদের জন্য তার নিজের চুল দান করেছিল। ছোট্ট তিতিরের এত বড় ভাবনা নাড়িয়ে দিয়ে গিয়েছিল সারা সমাজকে। তিতিরের এই আত্মত্যাগ দেখে অনুপ্রাণিত হন বাউড়িয়ার গৃহবধূ ছন্দাদেবী। তার পরেই তিনি ক্যানসার আক্রান্ত মুমূর্ষু রোগীদের স্বার্থে চুল দান করার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন। আমতার ‘স্বপ্ন দেখার উজান গাঙ’-এর সদস্যদের কাছে তিনি তাঁর এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন। তার পরেই তাঁর এই মহৎ উদ্দেশ্যকে বাস্তবায়িত করার জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন স্বপ্ন দেখার উজান গাঙ-এর সদস্যরা।

সংস্থার পক্ষ থেকে পৃথ্বীশরাজ কুন্তী জানান ছন্দাদেবীর সিদ্ধান্ত জানার পরেই তাঁরা মুম্বইয়ের একটি সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। সেই সংস্থা থেকে সবুজ সংকেত পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ছন্দাদেবীর ইচ্ছানুসারে তাঁর ১৭ ইঞ্চি চুলের ১২ ইঞ্চি কাটা হয়। সেই চুল ছন্দাদেবী স্বপ্ন দেখার উজান গাঙ-এর সদস্যদের হাতে তুলে দেন। পৃথ্বীশবাবুরা তা মুম্বইয়ের ওই সংস্থার কাছে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন। উপযুক্ত প্রক্রিয়াকরণের পর ওই চুল থেকে তৈরি উইগ মুম্বইয়ের ছ’টি ক্যান্সার হাসপাতালের দুঃস্থ রোগীদের হাতে তুলে দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। পৃথ্বীশবাবু বলেন, বিভিন্ন বেড়াজালকে ছিন্ন করে ছন্দাদেবীর নেওয়া এই মহৎ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানানোর জন্য কোনও ভাষাই যথেষ্ট নয়। তাঁর এই মহান ভাবনাকে তাঁরা কুর্নিশ জানান।

কেমোথেরাপির পর ক‍্যানসার রোগীদের অবর্ণনীয় চেহারাটা সকলেরই চেনা। কিন্তু তাঁদের মুখে হাসি ফেরানোর জন‍্য ক’জন আর উদ‍্যোগী হন? যদি তাঁদের ফিরিয়ে দেওয়া যেত আগের চেহারায়? তাঁরা চান এই ভাবনা সকলের মধ্যে জাগ্রত হোক। তাঁর সৌন্দর্যের অন্যতম উপকরণ একঢাল কালো চুল কেটে ফেলার জন্য এতটুকুও অনুশোচনা ছন্দাদেবীর মনে স্থান পায়নি। বরণ তাঁর মুখে এক তৃপ্তির অনুভূতি ছবি দেখা গিয়েছে। ক্যানসার রোগাক্রান্ত মানুষগুলোর মুখে হাসি ফুটলে তাঁর এই উদ্যোগ সার্থক হবে বলে তিনি জানান।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং