৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মানসিক ভারসাম্যহীন মেয়েকে আগুনে পুড়িয়ে মারল মা, তমলুকে চাঞ্চল্য

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 11, 2018 3:36 pm|    Updated: May 11, 2018 3:38 pm

Woman torches mentally unstable daughter in Tamluk

সৈকত মাইতি, তমলুক: আন্তর্জাতিক মাতৃ দিবসের ঠিক ৪৮ ঘণ্টা আগেই ভারসাম্যহীন মেয়েকে আগুনে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল মায়ের বিরুদ্ধে৷ অভিযোগ, অভাবের সংসারে ভারসাম্যহীন মেয়েকে দিয়ে অশান্তির অন্ত ছিল না সামন্ত পরিবারে৷ দিনের দিন অশান্তি ও মেয়ের শারীরিক যন্ত্রণার মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় ভারসাম্যহীন মেয়ের গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল মায়ের বিরুদ্ধে। শুক্রবার ভোরে ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার তমলুক থানার গোবিন্দপুরে৷

[ডাক শুনে কেউ না আসুক, ভোটে জিতে গ্রামের মেয়েদের শিক্ষার আলোয় আনবেনই রাখি]

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতার নাম শেফালি সামন্ত (৪২)৷ অভিযুক্ত মায়ের নাম অঞ্জলি সামন্ত৷ ছোট থেকে ভারসাম্যহীন অবস্থায় গোবিন্দপুরের মায়ের সঙ্গেই থাকতেন শেফালি৷ কিন্তু, গত কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন প্রান্তে আপন মনে ঘুরে বেড়াতে থাকেন তিনি৷ ফলে মায়ের চিন্তা দিনে দিন বাড়ছিল৷ মেয়েকে না পাওয়ে নিয়েও ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছিল৷ অভিযোগ, বৃহস্পতিবার গভীর রাত পর্যন্ত বাড়ির বাইয়ে থাকায় পর ভোরের দিকে বাড়ি ফিরেন শেফালি৷ রাতভর বাড়ি না ফেরায় মেয়ে ও মায়ের সঙ্গে তর্ক বিতর্ক তৈরি হয়।

অভিযোগ, মুহূর্তেই মা-মেয়ের বিবাদ চরমে ওঠে৷ এরপরই মেয়ের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে পুড়িয়ে মারে বলে অভিযোগ৷ বন্ধ ঘরে জীবন্ত দগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় ওই মহিলার৷  আজ, শুক্রবার সকালে তমলুক থানার পুলিশ দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য তমলুক জেলা হাসপাতালে পাঠিয়েছে। অভিযুক্ত অঞ্জলিকে পুলিশ আটক করে জিঞ্জাসাবাদ করছে। এই ঘটনায় এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া৷

[পরপর দুটি কন্যাসন্তান, সিউড়িতে স্ত্রীকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারল স্বামী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে