BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বহিরাগত ঠেকাতে হাতে অস্ত্র তুলে নিক মহিলারা, দিলীপের পথে হেঁটে বেলাগাম বাবুল

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 10, 2018 5:27 pm|    Updated: May 10, 2018 5:27 pm

Women should hold sword to protect family: Babul Supriyo

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুরঃ প্রথমে ভাষার লাগাম হারিয়ে ফেলেছিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আর এবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা আসানশোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। গ্রাম দখল আটকাতে দিলীপ ঘোষ নিদান দিয়েছিলেন মহিলাদের কাঁচা বাঁশকে হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করতে। আর বাবুল সুপ্রিয় বললেন সরাসরি অস্ত্র হাতে তুলে নিতে।

আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনের জন্য বৃহস্পতিবার দূর্গাপুরে প্রচারে গিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। দুর্গাপুরের কাঁকসার রাজবাঁধ, আমলাজোড়া ও সিলামপুরের বিভিন্ন্ এলাকায় রোড শো করেন তিনি৷ এরপর সিলামপুরে একটি জনসভায় যোগ দিয়েছিলেন বাবুল সুপ্রিয়৷ জনসভাতেই বক্তৃতা দেওয়ার সময়ে বেলাগাম মন্তব্যে ঝড় তোলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। তিনি বলেন, ‘পৃথিবীর সবথেকে বড় গণতান্ত্রিক দেশে, এই রাজ্যে সাধারন মানুষ আতঙ্কের মধ্যে বাস করছেন৷ ভোটাররা ভোট দিতে ভয় পাচ্ছে৷’

এরপরই সেই বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। সভায় উপস্থিত মহিলাদের উদ্দেশ্য করে তিনি জানিয়েছেন, মহিলাদের হাতে বোমা, পিস্তল বা বল্লম নেই৷ কিন্তু ঘরে বঁটি আছে৷ সেই বঁটি হাতে নিয়েই সংঘবদ্ধ ভাবে রুখে দাঁড়াতে হবে। নিজের ভোট নিজে দিতে হবে এবং যেখানেই বাঁধা আসবে সেই বঁটি দিয়েই পাল্টা প্রত্যাঘাত করতে হবে বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী বাবুল। এক্ষেত্রে মহিলাদের হিন্দু দেবীর সঙ্গে তুলনা করে অস্ত্র তুলে নিতে বলেন আসানশোলের সাংসদ।

বাবুলের এই মন্তব্য নিয়ে আসরে নেমেছে তৃণমূল। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এহেন মন্তব্যে যথারীতি প্রবল বিতর্ক শুরু হয়েছে। প্রবল সমালোচনা করেছে তৃণমূল৷ আসানসোলের মেয়র তথা পাণ্ডবেশ্বরের বিধায়ক জীতেন্দ্র তিওয়ারি কটাক্ষ করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, এই ধরনের মন্তব্য মহিলাদের সামনে করা উচিত কিনা তার ধারণা নেই মন্ত্রী বাবুলের। এর জন্য তাঁর, স্ত্রীর কাছ থেকে জেনে আসা উচিত ছিল বলে জানিয়েছেন মেয়র তথা বিধায়ক জীতেন্দ্র তিওয়ারি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে