BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভূমিপুত্র প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণবের আরোগ্য কামনায় মহামৃত্যুঞ্জয় যজ্ঞ কীর্ণাহারে

Published by: Suparna Majumder |    Posted: August 11, 2020 2:33 pm|    Updated: August 11, 2020 2:33 pm

An Images

ভাস্কর মুখোপাধ্যায়, বোলপুর: স্বাভাবিক সময় হলে হয়তো জন্মাষ্টমীর পর থেকেই কীর্ণাহারের মিরাটি গ্রামের মুখোপাধ্যায় বাড়ির দুর্গাপুজোর প্রস্তুতি শুরু হয়ে যেত। আসতেন দেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। চোখের পলকে হয়ে উঠতেন কীর্ণাহারের ভূমিপুত্র প্রণব মুখোপাধ্যায় (Pranab Mukherjee)। পুজোর যাবতীয় আচার-বিধি নিজেই করতেন। নিজেই করতেন চণ্ডীপাঠ। কংগ্রেসের নেতা থেকে ইউপিএ সরকারের মন্ত্রী হওয়া, তারপর দেশের রাষ্ট্রপতি হওয়ার পরও সেই নিয়মের অন্যথা হয়নি। রাষ্ট্রপতি পদ ছাড়ার পরও নিয়মিত দুর্গাপুজোয় অংশ নিয়েছেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। আজ তিনি করোনায় আক্রান্ত। মাথায় অস্ত্রোপচারের পর ভেন্টিলেশনে জীবনের তাগিদে লড়াই করছেন। ভূমিপুত্রর মঙ্গলকামনায় প্রার্থনা করছেন কীর্ণাহারবাসী। জপেশ্বর শিবমন্দিরে চলছে পুজো এবং যজ্ঞ। প্রণব মুখোপাধ্যায়ের মঙ্গল কামনায় মন্ত্রপাঠ করছেন পুরোহিতরা।

[আরও পড়ুন:হাওড়ার পুকুরে উত্তর আমেরিকার বর্ণময় উড ডাক, ক্যামেরাবন্দি করতে ব্যস্ত স্থানীয়রা]

মঙ্গলবার সকাল থেকেই শুরু হয়েছে মহামৃত্যুঞ্জয় যজ্ঞ। যজ্ঞের আগুনে তাঁর মঙ্গলকামনায় দেওয়া হচ্ছে আহুতি। যজ্ঞকুণ্ডের পাশে তাঁর ছবি নিয়ে বসে রয়েছেন এক অনুরাগী। তিনদিন ধরে এই যজ্ঞ চলবে বলে জানা গিয়েছে।

Pranab Mukherjee

এদিকে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের অসুস্থতার খবর পেয়েই পরোটা গ্রামে তাঁর দিদির বাড়িতে ভিড় জমান সাধারণ মানুষ। সকলেই ভূমিপুত্রর আরোগ্য কামনা করে। প্রার্থনা চলছে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের জন্মভিটে মিরাটি গ্রামেও। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি কিংবা প্রবীণ কংগ্রেস নেতা নন প্রণব মুখোপাধ্যায়ের তাঁদের পরিবারের সদস্য। সেই সদস্যর জন্যই দিনরাত প্রার্থনা করছেন প্রত্যেকে।

[আরও পড়ুন: কোভিড নেগেটিভ ভেবে দেহ ছাড়ল হাসপাতাল, দাহ করার পর মিলল পজিটিভ রিপোর্ট]

রবিবার রাতে নিজের দিল্লির বাসভবনের বাথরুমে পড়ে যান প্রণব মুখোপাধ্যায়। মাথায় আঘাত পান তিনি। সোমবার সকালে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করে জমে থাকা রক্ত বের করে ফেলা হয়। অস্ত্রোপচার সফল হলেও ৮৪ বছরের প্রণববাবু করোনা পজিটিভ। তাঁর রয়েছে হার্টের সমস্যাও। তাই আপাতত তাঁকে রাখা হয়েছে ভেন্টিলেশনে। আগামী ৯৬ ঘণ্টা তাঁকে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে বলে জানা গিয়েছে। প্রণববাবুর পরিবারের বাকি সদস্যদেরও করোনা পরীক্ষা করা হয়েছিল। প্রত্যেকের পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছে বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement