BREAKING NEWS

১০ কার্তিক  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

যুবকের রহস্যমৃত্যু, প্রেমিকার বাড়ি থেকে উদ্ধার ঝুলন্ত দেহ

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: January 13, 2019 10:55 am|    Updated: January 13, 2019 10:55 am

Youth's dead body recovered

ধীমান রায়, কাটোয়া: আট মাসের সম্পর্কে টানাপোড়েন। রাস্তায় রীতিমতো চুলের মুঠি ধরে প্রেমিকাকে মারধর করেছিলেন। রাতে আর বাড়ি ফেরেননি। রবিবার সকালে প্রেমিকার বাড়ির সামনে থেকে এক যুবকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করল পুলিশ। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে পূর্ব বর্ধমানের ভাতারে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, আত্মহত্যা করেছেন ওই যুবক। এদিকে ঘটনার পর থেকে বেপাত্তা মৃতের প্রেমিকা ও তার পরিবারের লোকেরা।

[কোচবিহারে বিএলআরও-কে বদলির হুমকি তৃণমূল নেতার, দেখুন ভিডিও]

মৃতের নাম সঞ্জয় রোম। বাড়ি, পূর্ব বর্ধমানের ভাতার গ্রামে। ভাতার বাজারে সবজির গাড়ি চালাতেন বছর একুশের ওই যুবক। পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, আট মাস ধরে ভাতারেরই ভুমশোর গ্রামের এক কিশোরীর সঙ্গে প্রেম করতেন সঞ্জয়। ভাতার গার্লস হাইস্কুলের দশম শ্রেণিতে পড়ে ওই কিশোরী। ভাতার বাজারে প্রায় রোজই দু’জনের দেখা হত। তবে ইদানিং ওই প্রেমিকার সঙ্গে অশান্তি চলছিল সঞ্জয়ের। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, শনিবার বিকেলে যখন দুই বান্ধবীর সঙ্গে টোটো চেপে বাড়ি ফিরছিল ওই কিশোরী, তখন রাস্তায় টোটো থামিয়ে প্রেমিকাকে বেধড়ক মারধর করেন সঞ্জয়। তখন  ওই রাস্তায় দিয়েই যাচ্ছিলেন ভাতারের বিডিও শুভ্র চট্টোপাধ্যায়। তিনি ভাতার থানায় খবর দেন। পুলিশ দেখেই অবশ্য পালিয়ে যান সঞ্জয়। পরিবারের লোকেদের দাবি, রাতে বাড়িতে এসেছিলেন ভাতার থানার পুলিশ আধিকারিকরা। সঞ্জয়কে থানায় দেখা করতে বলে গিয়েছিলেন তাঁরা। যদিও রাতে আর বাড়ি ফেরেননি ওই যুবক।

রবিবার ভোরে ভাতারের ভূমশোর গ্রামে প্রেমিকার বাড়ির সামনে সঞ্জয় রোমের ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা। খবর দেওয়া হয় থানায়। মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, আত্মহত্যাই করেছেন সঞ্জয়। অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

ছবি: জয়ন্ত দাস

[ এক দশক পর খুলবে পরিত্যক্ত স্কুল, সরকারি অনুমোদনে খুশি মিঠানির শিক্ষাপ্রেমীরা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement