BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

নবান্নের অনুরোধে পরিষেবায় রাশ, হাওড়া থেকে ট্রেন চলাচলের নিয়মে রদবদল

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: July 6, 2020 10:42 pm|    Updated: July 6, 2020 10:48 pm

An Images

ফাইল ফটো

সুব্রত বিশ্বাস: করোনা আবহে সংক্রমণের আশঙ্কায় বেশ কয়েকটি স্পেশ্যাল ট্রেনকে সপ্তাহে এক দিনের বেশি রাজ্যে প্রবেশ করতে দিতে নারাজ সরকার। রেল বোর্ডের চেয়ারম্যানের কাছে এই নিয়ে আগেই চিঠি দিয়েছিল রাজ্য সরকার। আর চিঠি পাওয়ার পরই বিশেষ ট্রেনের চলাচলে রাশ টানল রেল।

এবার নবান্নের আবেদনে সাড়া দিয়ে সপ্তাহে সাত দিন চলাচলকারী স্পেশ্যাল পূর্বা এক্সপ্রেসকে দু’দিন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল। এছাড়া, ০২৩০৩ নম্বরের হাওড়া-নয়াদিল্লি (ভায়া পাটনা) ও ০২৩০৪ নম্বরের নয়াদিল্লি-হাওড়া স্পেশ্যাল ট্রেনকে সপ্তাহে একদিন চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ট্রেন দু’টি যথাক্রমে শনিবার ও রবিবার গন্তব্যের উদ্দেশে রওনা দেবে। পূর্ব রেল আরও জানিয়েছে, ০২৩৮১ নম্বরের হাওড়া-নয়াদিল্লি স্পেশ্যাল ট্রেন (ভায়া ধনবাদ) আগামী ১৬ জুলাই থেকে শুধুমাত্র বৃহস্পতিবার হাওড়া থেকে ছাড়বে। একইভাবে নয়াদিল্লি থেকে ০২৩৮২ নম্বরের নয়াদিল্লি-হাওড়া স্পেশ্যাল ট্রেনটি শুধুমাত্র শুক্রবার ছাড়বে।

করোনা (Coronavirus) পরিস্থিতিতে ভিন রাজ্যের অধিক সংখ্যক ট্রেনের এ রাজ্যে প্রবেশ কমাতে দিন কয়েক আগেই রেলের কাছে আবেদনে জানানো হয়েছিল। হাওড়া ও শিয়ালদহ থেকে রোজই স্পেশ্যাল ট্রেন হিসেবে চলাচল করছে পূর্বা এক্সপ্রেস, যোধপুর এক্সপ্রেস, আহমেদাবাদ এক্সপ্রেস, অমৃতসর এক্সপ্রেস, পাটনা জনশতাব্দী এক্সপ্রেস, পদাতিক এক্সপ্রেস, ভুবনেশ্বর দুরন্ত এক্সপ্রেস। রেলের তরফে জানানো হয়েছে, এই ট্রেনগুলো না চললে আর্থিক ক্ষতি ছাড়া তাদের আর কোনওরকমের অসুবিধা হবে না। যদিও সেই আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ নেহাত কম নয়। জানা গিয়েছে, এক একটি ট্রেনে এক ট্রিপে আয় ১২-১৩ লক্ষ টাকার মতো। সপ্তাহে একদিন মাত্র একটি ট্রেন চললে ট্রেন পিছু ক্ষতির পরিমাণ দেড় কোটি টাকার বেশি।

[আরও পড়ুন: লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ, কলকাতা-সহ রাজ্যের একাধিক জেলায় ফের কড়া হচ্ছে লকডাউন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement