BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৪ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

করোনা আতঙ্কে লাটে ব্যবসা, কাজ ছেড়ে সচেতনতা প্রচারে যৌনকর্মীরা

Published by: Paramita Paul |    Posted: March 21, 2020 3:37 pm|    Updated: March 21, 2020 3:37 pm

An Images

বাবুল হক: করোনা আতঙ্কের জেরে নিজেদের গৃহবন্দি করে রাখতে শুক্রবার থেকে বন্ধ করে দেওয়া হল মালদহ শহরের হংসগিরি লেনের যৌনপল্লির দরজা। আপাতত তিনদিন মালদহের এই যৌনপল্লি এলাকা বন্ধ থাকবে। এমন ঘোষণার পাশাপাশি করোনা সচেতনতামূলক প্রচার নিয়ে কাজ শুরু করেন যৌনপল্লির দূর্বার মহিলা সমন্বয় সমিতির সদস্যরা।

ইতিমধ্যে তাঁরা প্রতিটি বাড়িতে করোনা সচেতনতামূলক সরকারি প্রচারপত্র বিলি করার কাজ শুরু করেছেন। যৌনপল্লি এলাকার প্রতিটি মানুষকে বোঝানো হচ্ছে করোনা ভাইরাস ঠেকাতে কিভাবে সচেতন থাকতে হবে। এদিন করোনা নিয়ে সচেতনতায় আলাদা করে মালদহ শহরের যৌনপল্লি এলাকায় অভিযান চালায় ইংলিশবাজার থানার পুলিশ। সেখানে সমস্ত রকম বেআইনি মদের ঠেক বন্ধ করে দেওয়া হয়। উদ্ধার করা হয় প্রচুর দেশি-বিদেশি মদ। পাশাপাশি এই অবস্থায় যৌনপল্লি এলাকার মানুষকে সচেতন থাকার ক্ষেত্রে পুলিশের পক্ষ থেকে প্রচার চালানো হয়। এদিন দূর্বার মহিলা সমন্বয় সমিতির সদস্য আমরি খাতুন বলেন, “বিশ্বজুড়ে করোনার জেরে যে অবস্থা তৈরি হয়েছে তার জন্যই যৌনপল্লি এলাকা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। একসঙ্গে অনেক মানুষের জমায়েত এখানে যাতে না হয়, তার জন্য প্রচার চালানো হচ্ছে। পাশাপাশি আগামী তিনদিন যৌনকর্মীদের তাদের কাছ থেকে বিরত থাকার জন্য আবেদন জানানো হয়েছে।”

[আরও পড়ুন : পুকুর থেকে প্রৌঢ়ের হাত-পা বাঁধা দেহ উদ্ধার, চাঞ্চল্য মহেশতলায়]

উত্তরবঙ্গের মধ্যে বৃহত্তম মালদহ শহরের হংসগিরি লেনের যৌনপল্লি এলাকাটি। যেখানে প্রতিদিন অসংখ্য মানুষের জমায়েত হয়। কিন্তু এক্ষেত্রে করোনা ভাইরাস যাতে এই যৌনপল্লি এলাকায় কোনও রকম ভাবে গ্রাস করতে না পারে, তার জন্য আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছেন ওই এলাকার দুর্বার মহিলা সমন্বয় সমিতির সদস্যরা। ওই সমিতির এক সদস্যা বলেন, “যৌনকর্মী-সহ অন্যান্যরা ঘর থেকে বাইরে যাতে না বের হয়, সেই নিয়ে প্রচার চালানো হচ্ছে। মানুষকে সচেতন করা হচ্ছে। এই অবস্থায় যৌনকর্মীদের বাড়ি থেকে না বেড়ানোরই পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে এবং সতর্কতামূলক প্রচার করা হচ্ছে। কোন অচেনা মানুষকে এলাকায় ঢুকতে দেওয়া হবে না। পাশাপাশি যৌন কর্মীরাও কোনওরকম কাজ করবেন না।”

[আরও পড়ুন : করোনা আতঙ্কে অগ্নিমূল্য বাজার, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অভিযানে পুলিশ-টাস্ক ফোর্স]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement