১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ৩ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

এক্সিট পোল সঠিক নয়, দিল্লিতে বিজেপিই ক্ষমতায় আসবে বলে দাবি অমিত শাহের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: February 9, 2020 2:53 pm|    Updated: February 9, 2020 2:53 pm

Exit Polls

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লিতে ফের আপ সরকার! শনিবার সন্ধেয় একাধিক বুথফেরত সমীক্ষার ইঙ্গিত দেখে শ্মশানের নীরবতা গেরুয়া শিবিরে। দিল্লির জনগণ ফের অরবিন্দ কেজরিওয়ালকেই চাইছেন, এই আভাস মেলার পর থেকে কাঁপন ধরেছে বিজেপির অন্দরে। তড়িঘড়ি শনিবার রাতে দলীয় সাংসদদের জরুরি বৈঠকে তলব করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সূত্রের খবর, এক্সিট পোল নিয়েই দীর্ঘক্ষণ আলোচনা হয় বৈঠকে। বৈঠকের পর অমিত শাহ দাবি করেন, ‘এক্সিট পোল এক্সাক্ট পোল’ নয়। অর্থাৎ বুথফেরত সমীক্ষা ভুলও হয়। তাঁর দৃঢ় বিশ্বাস, দিল্লিতে ক্ষমতায় আসবে বিজেপি।

বিজেপি সাংসদ মীনাক্ষী লেখি-সহ একাধিক নেতা-নেত্রীর দাবি, বুথফেরত সমীক্ষা ভুল প্রমাণিত হবে। ১১ তারিখ ফলাফল প্রকাশের পর সবাই চমকে যাবে বলে দাবি বিজেপি নেতৃত্বের। মীনাক্ষী লেখি জানিয়েছেন, ‘বিকেল ৪-৫টা পর্যন্ত তথ্যের উপর ভিত্তি করে এই সমীক্ষা তৈরি হয়েছে। আমাদের ভোটাররা বিকেলের পর এসে ভোট দিয়েছে। আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস, এই সমীক্ষা ভুল প্রমাণিত হবে।’ শাহ-লেখির মতো অনেক গেরুয়া শিবিরের নেতাই একাধিক সংবাদমাধ্যমের এক্সিট পোল মানতে নারাজ। দিল্লি বিজেপি সভাপতি মনোজ তিওয়ারি তো বলেই দিয়েছেন, ৪৬-৪৮টি আসন পেয়ে ক্ষমতায় আসবে বিজেপি। দলীয় সমীক্ষায় এটাই নাকি উঠে এসেছে দাবি তাঁর।

[আরও পড়ুন: দিল্লি নির্বাচন এক্সিট পোল: ফিরছেন কেজরিওয়াল! আসন বাড়ালেও নাগাল পাচ্ছে না বিজেপি]

প্রসঙ্গত, নির্বাচনী প্রচারে বিজেপি সর্বশক্তি দিয়ে দিল্লিতে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। ৭০ জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, ২৭০ জন সাংসদ, একাধিক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা, ৪০ জন তারকা প্রচারককে ময়দানে নামিয়েছিল বিজেপি। দিল্লির নির্বাচনের প্রচারে পুরোটাই ছিল কেজরিওয়াল বনাম বিজেপির লড়াই। আরেক দল কংগ্রেসকে সেভাবে দেখাই যায়নি মাঠে। সেইদিক থেকে এক্সিট পোল কপালে চিন্তার চওড়া ভাঁজ ফেলেছে। তাই তড়িঘড়ি সাংসদদের বৈঠকে তলব করেন অমিত শাহ। তাঁর দাবি, দিল্লিতে বিজেপিই ক্ষমতায় আসবে।

উল্লেখ্য, ৭০ আসন বিশিষ্ট দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে ২০১৫ নির্বাচনে আম আদমি পার্টি একাই ৬৭টি আসন জিতেছিল। বিজেপি জিতেছিল মাত্র ৩টি আসন। কংগ্রেস কোনও আসন জেতেনি। ভোটের আগে জনমত সমীক্ষাতেও দেখানো হয়, আম আদমি পার্টি ষাটের বেশি আসন পেতে পারে। কিন্তু, বুথফেরত সমীক্ষা বলছে, দিল্লিতে শেষ মুহূর্তে কিছুটা হলেও কামব্যাক করছে গেরুয়া শিবির। আর এর পিছনে অনেকেই শাহিনবাগের বিক্ষোভকে কারণ হিসেবে দেখছেন।

[আরও পড়ুন: ‘ভারতে কাজ করতে হলে হিন্দুদের উন্নয়ন করতে হবে’, বার্তা RSS নেতার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে