৮ ফাল্গুন  ১৪২৬  শুক্রবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রঞ্জন মহাপাত্র, কাঁথি: রাজনীতি থেকে ফুরসত পেয়ে এবার অভিনয়ের দিকে নজর দিয়েছেন মিমি চক্রবর্তী। অনেকদিন ধরেই জল্পনা চলছিল কোন পরিচালকের ছবিতে প্রত্যাবর্তন ঘটছে তাঁর। অবশেষে জানা গেল দেবালয় ভট্টাচার্যর নতুন ছবি ‘ড্রাকুলা স্যর’-এ দেখা যাবে মিমিকে। ছবির শুটিং শুরু হয়ে গিয়েছে। কলকাতার কালীঘাট এলাকায় চলছে শুটিং। আর তার ফাঁকেই ছোটদের সঙ্গে স্থানীয় একটি মন্দিরের চাতালে বসে ক্যারম খেলতে দেখা গেল অভিনেত্রীকে।

অবশ্য সর্বসমক্ষে ক্যারম খেলতে মিমিকে এর আগেও দেখা গিয়েছে। কিছুদিন আগে দলীয় কর্মসূচি সেরে ফেরার আগে তৃণমূল কার্যালয়ে কর্মীদের সঙ্গে ক্যারম বোর্ডে হাত পাকাতে দেখা গিয়েছিল মিমি চক্রবর্তীকে। খেলার মাঝখানেই রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসকে ফোন করে সেখানে আসার জন্য জোরাজুরিও করেছিলেন মিমি। গোটা ঘটনার ভিডিও তিনি ফেসবুক পেজে পোস্ট করেছিলেন। তবে এবার দলীয় কর্মীদের সঙ্গে নয়। এলাকার খুদেদের সঙ্গেই খেলতে দেখা গেল তাঁকে। মন্দিরের চাতালে বসে ছোটদের সঙ্গে ক্যারাম খেললেন তিনি। পরনে ছিল সাদা-কালো শাড়ি। সঙ্গে লাল স্রাগ বা সোয়েটার জাতীয় কিছু। ‘ড্রাকুলা স্যর’ ছবির শুটিংয়ের ফাঁকে যে তিনি ক্যারম খেলতে বসেছিলেন, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

[ আরও পড়ুন: বিরোধীদের চাপ! CAA প্রত্যাহারে রাজ্য বিধানসভায় প্রস্তাব পেশে রাজি মমতা ]

mimi-1

‘ড্রাকুলা স্যার’ ছবিটি আদতে সাইকোলজিক্যাল থ্রিলার। স্কুলে বাংলা পড়ায় এই স্যার। তার ‘ক্যানাইন টিথ’ দুটো একটু বড়। সেই থেকে ‘রক্তিম’-এর নাম হয়ে যায় ‘ড্রাকুলা স্যর’। তার একটা নিজস্ব জার্নি আছে। সে খুঁজছে তার অপূর্ণ ভালবাসাকে। এই সময়ের প্রেক্ষাপটে ছবির গল্প দানা বাঁধলেও চিত্রনাট্য ১৯৭০-এর প্রেক্ষাপটে। যেখানে আছে ড্রাকুলা স্যরের ভালবাসা ‘মঞ্জরী’। এই চরিত্রেই অভিনয় করেছেন মিমি চক্রবর্তী। ছবিতে সাতের দশককে তুলে ধরা হবে। ছবিতে নকশাল আন্দোলনের ছোঁয়াও থাকবে। ঋতুপর্ণ ঘোষের ‘গানের ওপারে’ ধারাবাহিকের ‘পুপে’ চরিত্রটিকে মাথায় রেখে মঞ্জরীর চরিত্র এঁকেছেন পরিচালক দেবালয় ভট্টাচার্য। ‘ধনঞ্জয়’-এর পর এই ছবিতে ফের একসঙ্গে দেখা যাবে মিমি ও অনির্বাণকে। ফলে অভিনেতা-অভিনেত্রীর পাশাপাশি দর্শকদের কাছেও একটি বড় পাওয়া।

[ আরও পড়ুন: ফের অঙ্গ প্রতিস্থাপন কলকাতায়, মৃত পড়ুয়ার অঙ্গে প্রাণ পাওয়ার আশা ৪ মুমূর্ষুর ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং