BREAKING NEWS

৩ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

রাজনীতির মঞ্চে দেখা যাবে সোহিনীকে? মুখ খুললেন অভিনেত্রী

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 2, 2019 7:46 pm|    Updated: April 2, 2019 7:46 pm

Actress Sohini Sarkar wants to make a mark in politics too

নববর্ষে মুক্তি পাচ্ছে সোহিনী সরকারের অভিনীত নতুন ছবি ‘ভিঞ্চি দা’। তার আগে আড্ডায় ব্যক্তিগত জীবন থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোল, উঠল মেগা সিরিয়ালের প্রসঙ্গও। কথা বললেন আরাত্রিকা দে

‘ভিঞ্চি দা’ ছবিতে তোমার চরিত্রটা নিয়ে জানতে চাইব।
সোহিনী: আমার চরিত্রের না জয়া, উত্তর কলকাতায় নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারে বেড়ে ওঠা একটা মেয়ে। তার কথা বলায় একটা সমস্যা আছে, তাই অনেকটা বয়স পর্যন্ত তার বিয়ে হয় না। তবে সেও একজনকে ভালবাসে, যে কিনা তার থেকে বয়সে অনেকটাই বড়। তবে তাদের মধ্যে একটা গভীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তারা একসাথে ঘর বাঁধতে চায়। তবে মেয়েটার আলাদা করে কোনও গুণ নেই। সে শুধুই একজন ভাল মানুষ।

চরিত্রের জন্য স্ট্যামার করতে হয়েছে, তার জন্য আলাদা কোনও প্রস্তুতি নিতে হয়েছে?
সোহিনী: প্রস্তুতি একটা ছিল, তবে তেমন বিশাল কিছু না। সৃজিতদা (সৃজিত মুখোপাধ্যায়) অনেকটা সাহায্য করেছে।

প্রথম যখন এই চরিত্রের প্রস্তাব পেলেন তখন তো ভূমিকন্যার শুটিংয়ে ব্যস্ত দুটো সামলালেন কীভাবে?
সোহিনী: সৃজিতদা যখন আমায় ফোন করেছিলেন তখনই আমি জানতে চেয়েছিলাম চরিত্রটা করতে কতটা সময় লাগবে, কারণ ২০ দিন ছুটি নিতে হলে তো আমি পারতাম না। কারণ তখন ভূমিকন্যার জন্য আমার একটা কমিটমেন্ট ছিল। তবে জয়া চরিত্রের জন্য খুব কম সময় লেগেছে। এবং চরিত্রটায় স্ট্যামার করতে হত বলে আমিও খুব আগ্রহী ছিলাম, কাজটা করার জন্য।

আপনার প্রথম শুরু মেগা দিয়ে, টেলিভিশনের শেষ কাজ ‘ভূমিকন্যা’ ভাল কন্টেন্ট পেলে আবার করবেন?
সোহিনী: মেগা আমি করব না, দু-তিন বছর ধরে চলবে তেমন কোনও কাজ করব না, ‘ভূমিকন্যা’ করতে রাজি হয়ছিলাম কারণ এটা একটা সিরিজ। এখন তো অনেক এক্সপেরিমেন্টাল কাজ হচ্ছে টেলিভিশনে, সে রকম যদি সীমিত কোনও প্রোজেক্ট পাই নিশ্চয়ই টেলিভিশনে করব।

[ আরও পড়ুন: জন্মদিনে অনুরাগীদের ‘দে দে পেয়ার দে’-এর ট্রেলার উপহার অজয় দেবগণের ]

এখন তুমি প্রচুর কাজ করছ। নিজেকে দর্শক আসন থেকে দেখলে সোহিনী সরকারের ইউ এস পি কী?
সোহিনী: মনে হয় আমার মধ্যে যে ন্যাচারাল অর্গানিক দিক আছে, মনে আমার অ্যাটিটিউড, আর ন্যাচারাল আভিনয়টাই আমার ইউএসপি। (হাসি)

হাডকোর কমার্শিয়াল ছবি কি কখনও করবে?
সোহিনী: হ্যাঁ নিশ্চয়ই করব। আমি তো সবসময় আলাদা কিছু করতেই চাই।

এখনকার সময় তোমার প্রিয় অভিনেতা?
সোহিনী: অনেক আছে, ঋত্বিক, অনির্বাণ, আরও অনেকে। বলা মুশকিল।

এমন কোনও কাঙ্খিত চরিত্র আছে যা তুমি করতে চাও?
সোহিনী: একটা সাইকো চরিত্র করতে চাই। (হাসি)

চরিত্রের প্রয়োজনে বোল্ড শেডে কোনও আপত্তি?
সোহিনী: বোল্ডের অনেক রকম ব্যাখ্যা হয়, কোন রকমটা ঠিক বোল্ড বলা যায় সেই বিষয় সম্যক ধারণাটা থাকা খুব দরকার। তারপর তো করা না করা।

অভিনয় না করলে কী করতে?
সোহিনী: এখন তো অভিনয় করছি সুতরাং এই সময় বলা মুশকিল কী করতাম, তবে ছোট থেকে ডক্টর হওয়ার ইচ্ছা ছিল।

তোমার রিলেশনসনশিপ স্ট্যাটাস কী? দর্শকরা জানতে চান।
সোহিনী: যাঁরা জানতে চান তাঁরা আগে তাঁদের রিলেশনশিপ নিয়ে আমায় বলুক আমিও তাঁদের বলব (হাসি)।

[ আরও পড়ুন: ‘অ্যাভেঞ্জার্স’ পরিচালকের লোভনীয় প্রস্তাব, ফের হলিউড ছবিতে প্রিয়াঙ্কা ]

কিছুদিন আগে তোমার একটা বিজ্ঞাপন ট্রোল্ড হয়েছিল, সেই প্রসঙ্গে কী বলবে?
সোহিনী: এটা একটা বড়ো উত্তর হয়, যাঁরা এটা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তাঁদের উদ্দেশে আমি এটা বলতে পারি, তাঁদের যে ভাবাবেগ সেটা কতটা খাঁটি? দেশাত্মবোধ তো কোনও যন্ত্রে মাপার জিনিস নয়। আর আমার ঠিক মনে হয়েছে আমি করেছি। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁরা যে ভাষায় আক্রমণ করেছেন সেটা কি দেশাত্মবোধের পরিচয়? যাঁরা দু’দিন সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রমণ করে তাঁরা ওইখানেই পাকিস্তানকে আক্রমণ করছেন, অনির্বাণ সোহিনীকে আক্রমণ করছেন, আবার মাঝেরহাট ব্রিজ ভেঙে পড়লেও সেখানেই দুঃখ প্রকাশ করেছেন। সুতরাং তাঁদের নিয়ে কথা বলে আমি সময় নষ্ট করতে চাই না। আমি একটুও রিগ্রেট নই। এটা আমার কাজ আমি করেছি।

রাজনীতির মঞ্চে সোহিনী সরকারকে কখনও দেখতে পাব?
সোহিনী: আমার যখন মনে হবে আমি জায়গা করে নেব।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে