BREAKING NEWS

১০  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কৃতকর্মের ফল ভুগলেন ব্র্যাড, দাবি প্রাক্তন স্ত্রীর!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 21, 2016 8:06 pm|    Updated: September 21, 2016 8:06 pm

As Brangelina split, Jennifer Aniston's Hilarious Memes Take Over Internet

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সম্পর্কটা শুরু হয়েছিল সেই ২০০৪ সালে! দীর্ঘ সেই একত্রবাসের মাঝেই তিনটি সন্তান দত্তক নেওয়া এবং তিনটি সন্তানের জন্ম। বিয়েটা তো মাত্র ২০১২ সালের ব্যাপার! সব মিলিয়ে যখন ভাঙল অ্যাঞ্জেলিনা জোলি এবং ব্র্যাড পিটের এমন জমাটি সংসার, সারা পৃথিবীতে শোরগোল তো পড়বেই! তাঁদের নামটাও তো জুড়ে গিয়েছিল পরস্পরের সঙ্গে, সবাই বলত ব্র্যাঞ্জেলিনা!


তা, ব্র্যাড পিটের ঘটনায় কেমন লেগেছে, সেটা এখনই বলা যাচ্ছে না! তিনি এই বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ে মুখ খোলেননি এখনও! হতেই পারে তিনি দুঃখ পেয়েছেন! অথবা, জোরদার আঘাত লেগেছে তাঁর পৌরুষে। কেন না, ডিভোর্সের কাগজটা তাঁর হাতে ধরিয়েছেন খোদ অ্যাঞ্জেলিনা! নায়িকার দাবি, স্বামীর অত্যাচার তাঁর পক্ষে মেনে নেওয়া আর সম্ভব ছিল না! দীর্ঘ দিন ধরে শারীরিক, মানসিক অনেক কিছু বয়ে চলেছিলেন তিনি! সন্তানদের সঙ্গেও ব্র্যাডের নিষ্ঠুর আচরণ মেনে নিতে পারছিলেন না আর! এবার তাই সে সবের হাত থেকে নিষ্কৃতি চান! পাশাপাশি, সন্তানদেরও রাখতে চান নিজের কাছেই!


ঘটনাটা খারাপ হলেও ব্র্যাড পিটের প্রাক্তন স্ত্রী জেনিফার অ্যানিসটনের একটি মন্তব্য কিঞ্চিৎ ভাবাবে। বিখ্যাত এই নায়িকা প্রাক্তন স্বামীর নাম না করেই বলেছেন, এটা ওর কৃতকর্মের ফল!
কৃতকর্ম?
তা তো বটেই! ২০০৪ সালে ‘মিস্টার অ্যান্ড মিসেস স্মিথ’ ছবির শুটিং করতে গিয়ে অ্যাঞ্জেলিনা জোলির প্রেমে পড়েন ব্র্যাড পিট। এবং, পরিণামে স্ত্রী জেনিফার অ্যানিসটনকে বিবাহবিচ্ছেদের কাগজ ধরান তিনি! সেই কথাই এবার উঠে এল অ্যানিসটনের মন্তব্যে!
তবে এখানেই শেষ নয়। অ্যানিসটনের এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু আরও কয়েকটি বিস্ফোরক কথা জানিয়েছেন সংবাদমাধ্যমকে। বলেছেন, ”জেনিফার সব সময়েই বলত ব্র্যাডের সঙ্গে কিছু একটা খারাপ হবে! এবার সেই কথা মিলে গেল!”


পাশাপাশি, অ্যাঞ্জেলিনাকে নিয়েও মতামত খুব একটা সহজ ছিল না অ্যানিসটনের। প্রায়ই না কি বলতেন তিনি, ”অ্যাঞ্জেলিনা মোটেই ব্র্যাডের উপযুক্ত নয়! ও খুব জটিল স্বভাবের মেয়ে! ওকে বিয়ে করার ফল ব্র্যাডকে ভুগতেই হবে!”
সঙ্গত কারণেই ইন্টারনেট এখন উত্তাল হয়েছে জেনিফার অ্যানিসটনকে নিয়ে। সংবাদমাধ্যমের সৌজন্যে দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে ব্র্যাঞ্জেলিনার সংসার নিয়ে অ্যানিসটনের এমন মন্তব্য। পরিণামে হরেক gif ছবিতে ভরে গিয়েছে ইন্টারনেট! সবেতেই রয়েছেন অ্যানিসটন। আর সবারই প্রতিপাদ্য এক- কী ভাবে ব্র্যাঞ্জেলিনার বিবাহবিচ্ছেদ উপভোগ করছেন নায়িকা!


দেখছেনই তো ছবিগুলো! কি মনে হয়, জেনিফার সত্যিই এমনটা ভাবছেন?

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে