BREAKING NEWS

১ মাঘ  ১৪২৭  শুক্রবার ১৫ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বেআইনি নির্মাণের অভিযোগে অমিতাভকে নোটিস বিএমসি-র

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 26, 2017 4:24 am|    Updated: January 11, 2021 5:44 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বেআইনি নির্মাণের অভিযোগে এবার অমিতাভ বচ্চনকে নোটিস পাঠাল বৃহন্মুম্বই পুরসভা। বিগ বি-সহ নোটিস পাঠানো হয়েছে  সাতজনকে। তথ্য জানার অধিকার আইনে আবেদনের জবাবে একথা জানিয়েছে বৃহন্মুম্বই পুরসভা কর্তৃপক্ষ।

[শাহরুখ খানের বেআইনি ক্যান্টিন ভেঙে দিল পুরসভা]

জানা গিয়েছে, গত বছরের ডিসেম্বরে মহারাষ্ট্র রিজিওনাল টাউন প্ল্যানিং আইনে অমিতাভ বচ্চন, পরিচালক রাজকুমার হিরানি, পঙ্কজ বালাজি, সঞ্জয় ব্যাস, হরিশ খাণ্ডেলকর, হ্যারিস জাগতিয়া ও ওবেরয় রিয়ালটিকে এই নোটিশ পাঠায় বিএমসি। কিন্তু, অমিতাভ বচ্চনের বিরুদ্ধে ঠিক কী অভিযোগ উঠেছে?  মুম্বইয়ের গোরেগাঁও-এ ফিল্মসিটির কাছে বেশ কয়েকটি বিলাসবহুল বাংলো তৈরি হচ্ছে।  অমিতাভ বচ্চন-সহ অভিযুক্তরা সেখানে বাংলো কিনেছেন। তথ্য জানার অধিকার আইনে আবেদনকারী অনিল গালগালি জানিয়েছেন, বাংলোয় নির্মাণে পুরসভার অনুমোদিত প্ল্যানে বেশ কিছু অদলবদল ঘটানো হয়েছে। বিষয়টি নজরে আসার পরই, বিএমসি বাংলো নির্মাণকারী সংস্থাকে জানায়, হয় বাংলোর বেআইনি অংশ ভেঙে ফেলতে হবে অথবা ফের নতুন করে বাংলোর প্ল্যান পুরসভায় জমা দিতে হবে। আবেদনকারীর দাবি, ইতিমধ্যেই নির্মীয়মাণ বাংলোটি পরিদর্শন করে গিয়েছেন পুরসভার আধিকারিকরা। পরিদর্শনে বেশ কিছু অনিময় ধরা পড়েছে। বস্তুত, নোটিস পাওয়ার পর পুরসভার নতুন প্ল্যানও জমা দিয়েছিলেন বাংলোর স্থপতি শশাঙ্ক কোকিল। কিন্তু, সেই প্ল্যান অনুমোদন করেনি বিএমসি। এরপর অমিতাভ বচ্চন-সহ অভিযুক্তদের বাংলোর বেআইনি নির্মাণ ভেঙে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। কিন্তু, স্থানীয় ওয়ার্ড অফিস থেকে পুরসভাকে জানানো হয়, টেকনিক্যাল কারণে বাংলোর বেআইনি নির্মাণ ভেঙে ফেলা সম্ভব নয়।

[আইনি গেরোয় এবার ফাঁসলেন রানি মুখোপাধ্যায়]

তথ্য জানার অধিকার আইনে আবেদনকারী ও সমাজকর্মী অনিল গালগালি বক্তব্য, মাস চারেক আগে শাহরুখ খানের অফিসের বেআইনি নির্মাণ ভেঙে দিয়েছিল পুরসভা। পুর আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে কমেডিয়ান কপিল শর্মা-সহ অনেক সেলিব্রিটির বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করা হয়েছে। তাহলে অমিতাভ বচ্চন-সহ অভিযুক্তদের বাংলোর বেআইনি অংশই বা কেন ভেঙে দেওয়া হচ্ছে না?  এ বিষয়ে অবিলম্বে পদক্ষেপ করার আরজি জানিয়ে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিস ও বৃহন্মুম্বই পুরসভার কমিশনার অজয় মেহতাকে চিঠিও দিয়েছেন ওই সমাজকর্মী।

[তাজমহল কি ভবিষ্যতে বিলুপ্ত হবে, প্রশ্ন অভিনেতা প্রকাশ রাজের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement